সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর ঘটেছে একসপ্তার বেশি সময় অতিক্রান্ত। তবুও মানুষ এখনও মেনে নিতে পারচ্ছেন না এত দক্ষতা থাকার সত্ত্বেও কোন পরিস্থিতি সুশান্তকে জীবন শেষ করতে বাধ্য করল! কেন একটা সাধারণ ছেলে নিজের জায়গা পাকা করতে পারে না বলিউডে! কেন একশ্রেণী পরিচালকেরা কেবলমাত্র স্টারকিডদের নিয়েই ব্যস্ত। নেপোটিজম টেনে এনে নেটদুনিয়ায় ঝড় তুলল সুশান্ত সিং রাজপুতের ভক্তরা। 

আরও পড়ুনঃ রামলীলা-বেফিকরে হাতছাড়া সুশান্তের, খতিয়ে দেখা হচ্ছে যশরাজ ফিল্মসের সঙ্গে চুক্তি

বাবার ক্ষমতা থাকা, পরিবারের প্রভাব থাকাটাই কী দক্ষতার পরিচয়, কেন গড ফাদারের অভাব অনুভব করেছিলেন সুশান্ত! এমন হাজারও প্রশ্নকে উড়িয়ে দিয়ে রবিবার ফাদার্স ডে-তে মুখ খুললেন সোনাম কাপুর। লিখলেন, তিনি তাঁর বাবার কন্যা, আজ যা হয়েছেন, তাঁর বাবার জন্যই হয়েছেন, অনীল কাপুর নিজের এই জায়গাটা করতে অনেক পরিশ্রম করেছেন। তবেই তিনি সোনামকে এই দিনটি দিতে পেড়েছেন। 

 

 

এখানেই শেষ নয়, সোনাম আরও জানান, এটা তাঁর ভাগ্য তিনি এখানে জন্মেছেন। সকলেই নিজের ভাগ্যেই জন্মায়। সোনামের এই মন্তব্য যেমন তাঁর বাস্তব পরিস্থিতির স্বরুপ স্পষ্ট হয়ে দাঁড়ায়, ঠিক তখনই অন্য এক শ্রেণীর মানুষেরা তোপ হেনে দাবি তোলেন নেপোটিজম আবার হাজির করে তা বলাও হচ্ছে। সোনাম কাপুর বরাবরই স্পষ্ট বক্তা। সুশান্তের মৃত্যুতে এভাবে নেটদুনিয়া স্টারকিডদের পাশ থেকে সরে যাবে এটা অনেকেই হয়তো ভাবতে পারেননি, কিন্তু সোনাম সাফ জানাতে দ্বিধা বোধ করেননি- তিনি প্রিভিলেজ।