সুশান্তের মৃত্যুর তদন্তে একের পর এক নয়া মোড় বেরিয়ে আসছে।  মৃত্যুর ৪০ দিন পার হলেও জলঘোলা যেন বেড়েই চলেছে। তার মৃত্যুর পিছনের আসল রহস্য এখনও বের করে উঠতে পারেনি মুম্বই পুলিশ। ইতিমধ্যেই মুম্বই পুলিশের বিরুদ্ধে উঠেছে একের পর এক অভিযোগ। সুশান্তের বাবার করা এফ আইএর-পর বিহার পুলিশ তদন্তে নেমেছে। সম্প্রতি একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। যা নিয়েই রহস্য আরও গাঢ় হচ্ছে।

আরও পড়ুন-বনি- কৌশানির কোলে এল 'বাহুবলি', একমাসের ছোট্ট খুদেই নেটদুনিয়ার 'হটকেক'...

একের পর এক সুইসাইড কেস ডিলিট করার অভিযোগ উঠেছে মুম্বই পুলিশের বিরুদ্ধে। এর মধ্যেই একটি ভাইরাল ভিডিওতে সুশান্তের মৃত্যু তদন্ত নয়া মোড় এনেছে। প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের হাসপাতালের ডারমাটোলজিস্ট মীনাক্ষি মিশ্র দাবি করেছেন, সুশান্তের মৃত্যু আত্মহত্যা নয়। এটা পরিস্কার খুন। ১৪ জুন নয়, বরং ১৩ জুনই তাকে মেরে ঝুলিয়ে দেওয়া হয়েছিল। দেখে নিন ভিডিওটি,

 

 

আরও পড়ুন-ফের করোনার থাবা 'কৃষ্ণকলি'র সেটে, কোভিডে আক্রান্ত শ্যামার স্বামী নিখিল...

সুশান্তের মৃত্যু নিয়ে জল্পনা ক্রমশ বেড়েই চলেছে।মৃত্যুর ৪০ দিন কেটে গেলেও কোনও ব্যবস্থা নেননি মুম্বই পুলিশ। ভার্চুয়াল ময়নাতদন্তের ভিডিও পোস্ট করে সুশান্তের শরীরের ক্ষতচিহ্নগুলি তুলে ধরেছেন ড.মীনাক্ষী। এবং তিনি  জানিয়েছেন, সুশান্তের বাঁ চোখের উপরে আঘাতের চিহ্ন এবং ঠোঁঠের কালো দাগে কীভাবে এল, তাও তদন্ত করতে হবে। গলায় ফাঁস লাগিয়ে কেউ আত্মহত্যা করলে দাগগুলি কোথা থেকে এল। সুশান্তের গলার ফাঁসের দাগও তুলে ধরেছেন তিনি।এমনকী হাঁটুর ক্ষতচিহ্নও চিহ্নিত করেছেন মীনাক্ষি। মুম্বই পুলিশ অন্য কাউকে বোকা বানালেও ডাক্তারকে কেন বোকা ভাবছে, এই প্রশ্নই তিনি তুলেছেন। মুহূর্তের মধ্যে তার এই ভিডিও দুরন্ত গতিতে ভাইরাল হয়েছে। বিজেপি নেতা সুব্রহ্মণ্যম স্বামীও ড. মীনাক্ষির এই ভিডিও টুইটারে শেয়ার করেছেন।

 

সুশান্তের পরিবারের পক্ষ থেকে এখনও ছেলের মৃত্যু আত্মহত্যা বলে মানতে নারাজ। সুশান্তের মৃত্যুতে একাধিক অভিযোগের আঙুল উঠেছে প্রেমিকা রিয়ার দিকে। সুশান্তের বাবাও ১৬ দফা অভিযোগ দায়ের করেছেন রিয়ার বিরুদ্ধে। এর  মধ্যেই ভিডিও বার্তায় বিস্ফোরক বার্তা দিয়েছেন সুশান্তের বাবা।ইতিমধ্যেই বিহার থেকে চারজন সদস্য তদন্তের জন্য মুম্বইয়ে এসেছে।