কোভিডের দ্বিতীয় বর্ষে দেশের স্বাস্থ্যখাতে খরচ বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিলেন অর্থমন্ত্রী। স্বাস্থ্য খরচ বাড়ল প্রায় ১৩৫ শতাংশ। যেখানে আগেরবার স্বাস্থ্যখাতে খরচ ছিল ৯৪ হাজার কোটি টাকা।   সেখানে এবার বারতের স্বাস্থ্য়খাতে বরাদ্দ বেড়ে দাঁড়াল ২ লক্ষ ৩৮ হাজার কোটি টাকা। 

আরও পড়ুন, বাজেটে কী কী পেল পশ্চিমবঙ্গ, জানালেন অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামণ  

 

 

অর্থমন্ত্রী এদিন বলেন, এবারের বাজেটে ৬ টি মূল স্তম্ভের উপর ভিত্তি করে করা হয়েছে। নতুন করে আবার কোনও সংক্রমণ যাতে না ছড়ায়,তা নিশ্চিত করতে চায় সরকার।  নতুন যে সকল রোগের আশঙ্কা আছে, সেটা বাঁচতে প্রাথমিক স্বাস্থ্যখাতে আগমী ৬ বছরে ৬৪ হাজার ১৮৯ কোটি টাকা খরচ করা হবে। দেশের সব জেলায় তৈরি হবে স্বাস্থ্য ল্যাব। ৬০২ জেলায় সব ব্লকে ক্রিটিক্যাল কেয়ার হাসপাতাল তৈরি করবে সরকার। ১৭ টি নতুন পাবলিক হেলথ ইউনিট সক্রিয় হবে গোটা দেশে। ১৫ টি হেলথ এমারজেন্সির অপারেশন সেন্টার খোলা হবে। খোলা হবে ৭ টি বায়ো সেফটি ল্যাব। 

আরও পড়ুন, সোমবার মমতার উত্তরবঙ্গ সফর ঘিরে প্রস্তুতি তুঙ্গে, হারানো জমি পুনরুদ্ধার হবে কি  

 

 


আগামী দিনে দেশের গ্রামাঞ্চলের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে পুষ্টি অভিযানের সূচনা করা হবে। ৫০০ শহরে লিকুইড ওয়েস্ট ম্যানেজমেন্ট ৮৭ হাজার কোটি। উল্লেখ্য, চলতি বছরে করোনা টিকাকরণের জন্য আরও টাকার দরকার পড়লে তা দেবে সরকার বলে জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী।