Asianet News BanglaAsianet News Bangla

ছাত্র 'অপহরণে' ৭ লক্ষ টাকা মুক্তিপণ দাবি, খালপাড়ে অপহৃতের দেহ উদ্ধারে ভাঙচুর-উত্তেজনা

  • ছাত্রকে অপহরণ করে ৭ লক্ষ টাকা মুক্তিপণ দাবি
  • ছেলের অপহরণে দিশেহারা অবস্থা দিনমজুর বাবার
  • এর মধ্য়েই এলাকার খালপাড় থেকে অপহৃতের দেহ উদ্ধার
  • ঘটনার জেরে এলাকায় উত্তেজনা, অভিযুক্তের বাড়ি ভাঙচুর
Allegedly kidnapped student body found at Burdwan ASB
Author
Kolkata, First Published Sep 18, 2020, 11:43 AM IST

পত্রলেখা বসু চন্দ্র, বর্ধমান-অপহৃত ছাত্রের দেহ উদ্ধার ঘিরে উত্তেজনা ছড়াল পূর্ব বর্ধমানের গলসিতে। অভিযুক্তের বাড়িতে ভাঙচুর চালায় উত্তেজিত জনতা। ঘরের ভিতর আগুন ধরিয়ে দেয়। শুক্রবার সকালে হাত-পা বাঁধা অবস্থায় তৃতীয় শ্রেণির ওই ছাত্রের দেহ উদ্ধার করে পুলিশ। পঞ্চায়েত সদস্যের ছেলেকে অপহরণ করে খুনের ঘটনায় ঘণীভূত হচ্ছে রহস্য।

আরও পড়ুন-দিনমজুরের ছেলেকে'অপহরণ' করে ৭ লক্ষ মুক্তিপণ দাবি, পঞ্চায়েত সদস্যের শিশু অপহরণে রহস্য

বুধবার বিকেল থেকে খোঁজ মিলছিল না তৃতীয় শ্রেণির ছাত্র নয় বছরের সন্দীর দোলুইয়ের। সন্ধ্যে নাগাত সাত লক্ষ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে কে বা কারা ফোন করে। মায়ের অনেক কাকুতি মিনতির পর তিন লক্ষ টাকা পর্যন্ত মুক্তিপণ দাবি করেছিল দুষ্কৃতীরা। কাউকে কিছু জানালে তাঁদের ছেলেকে খুন করার হুমকিও দেওয়া হয়।

বৃহস্পতিবার ঘটনাটি প্রকাশ্য়ে আসে। গলসির সাঁকো গ্রাম পঞ্চায়েতের সদস্য ও পেশায় দিনমজুর বুদ্ধদেব দোলুইয়ের দিশেহারা অবস্থা হয়। কোনও উপায় না পেয়ে গলসি থানায় অভিযোগ দায়ের করেন তিনি। এরপরই শুক্রবার সকালে এলাকার খালপাড় থেকে হাত-পা বাঁধা অবস্থায় ছাত্রের দেহ উদ্ধার হয়।

আরও পড়ুন-গ্রামের মোড়লের নিদানে 'গণধর্ষের শিকার' ৫৪ বছরের বৃদ্ধা, বর্ধমানে গ্রেফতার ৪ যুবক

অপহৃত ছাত্রের দেহ উদ্ধার ঘিরে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে এলাকায়। ছাত্র অপহরণের ঘটনা জড়িত সন্দেহে অভিযুক্তদের বাড়িতে ভাঙচুর চালায় উত্তেজিত জনতা। লাঠি, লোহার রড দিয়ে বাড়িতে ভাঙচুর করা হয়। পাশাপাশি, অভিযুক্তের ঘরের ভিতর আগুন লাগিয়ে দেয় উত্তেজিত জনতা। 

আরও পড়ুন-রাজনৈতিক সংঘর্ষের বলি ছাত্র সহ ২ জন, সকাল থেকে থমথমে কেশপুর

তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রের দেহ উদ্ধার ঘিরে ব্য়াপক উত্তেজনা নিয়ন্ত্রণে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় গলসি থানার বিশাল পুলিশ বাহিনী। অপহৃত ছাত্রের দেহ উদ্ধার হওয়ার পর থেকেই পলাতক অভিযুক্তরা। ঘটনার পিছনে পারিবারিক শত্রতা রয়েছে বলে প্রাথমিক অনুমান পুলিশের।  

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios