পত্রলেখা চন্দ্র বসু , বর্ধমান-গ্রামের মোড়লের নিদানে বছর চুয়ান্নর বৃদ্ধাকে গণধর্ষণের অভিযোগ উঠল চার যুবকের বিরুদ্ধে। এমনই চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে পূর্ব বর্ধমানের ভাতারে। নির্যাতিতা ওই বৃদ্ধার মেয়ের বিরুদ্ধে বিবাহ বর্হিভূত সম্পর্কের অভিযোগ ওঠে। গ্রামের মোড়লের নির্দেশে তাঁর মেয়েকে গ্রাম ছাড়া করা হয়। সেই মেয়ে অসুস্থ অবস্থায় বাড়ি ফিরলে তাঁর মাকে নির্যাতন করল গ্রামেরই যুবকরা। চতার যুবক মিলে ওই বৃদ্ধার উপর শারীরিক ও পাশবিক অত্যাচার চালায় বলে অভিযোগ।

আরও পড়ুন-রাজনৈতিক সংঘর্ষের বলি ছাত্র সহ ২ জন, সকাল থেকে থমথমে কেশপুর

পুলিশের সূত্রে খবর, ওই বৃদ্ধার মেয়ের বিরুদ্ধে বিবাহ বর্হিভূত সম্পর্কের অভিযোগ ওঠেছিল। গ্রামের মোড়লরা তাঁর মাকে নির্দেশ দিয়েছিল ওই মেয়ে যেন গ্রামে না ঢোকে। এই অবস্থায় তাঁর মেয়ে অন্যত্র রেখে এসেছিল ওই বৃদ্ধা। কিন্তু কয়েকদিন আগে গ্রামে জানাজানি হয় বাড়িতে ফিরেছে তাঁর মেয়ে। অভিযোগ, গ্রামের মোড়লের নির্দেশে সোম মূর্মূ, মঙ্গল বেসরা সুনীল মান্ডি ও ডিঙ্গা মুর্মু নামে চার যুবক ওই বৃদ্ধার উপর অত্যাচার চালায়। শুধু তাই নয় বৃদ্ধার উপর গণধর্ষণ ও যৌন নির্যাতন চালানো হয় বলে অভিযোগ। মঙ্গলবার মাঝরাতে বাড়িতে ঢুকে অত্য়াচার চালায় ওই চার যুবক। 

আরও পড়ুন-প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন পালনে বাধা, অশোকনগরে পুলিশের বিরুদ্ধে ক্ষোভ বিজেপির

জানাগেছে, সালিশি সভায় গ্রামের মোড়লদের নিদানে গ্রাম ছাড়া হয়েছিল তাঁর মেয়ে। কিন্তু কিছু দিন আগে তাঁর মেয়ে অসুস্থ হওয়ায় তাঁকে বাড়ি ফেরানোর জন্য গ্রামের মোড়লদের কাছে অনুমতি নেন ওই বৃদ্ধা। তারপরেও গ্রামের মোড়লদের নির্দেশে বৃদ্ধার উপর নিযার্তন চালানো হয় বলে অভিযোগ।

আরও পড়ুন-দিনমজুরের ছেলেকে'অপহরণ' করে ৭ লক্ষ মুক্তিপণ দাবি, পঞ্চায়েত সদস্যের শিশু অপহরণে রহস্য

ভাতার থানায় অভিযোগের ভিত্তিতে অভিযুক্ত চার যুবককে গ্রেফতার করে ভাতার থানার পুলিশ। অভিযুক্তদের বর্ধমান আদালতে তোলা হলে তাদের দুদিনের পুলিশ হেফাজতের নির্দেশ দেন বিচারক। এই ঘরনের মর্মান্তিক ঘটনার কড়া সমালোচনা করেছেন বিশিষ্টমহল।