পত্রলেখা বসু চন্দ্র, বর্ধমান:  করোনা আতঙ্কে মাঝে এবার নয়া বিপত্তি। দুর্গাপুজো নিয়ে ভুয়ো পোস্ট ও বিভ্রান্তকর তথ্য ছড়াচ্ছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। এবার বর্ধমানের মেমারি থেকে এক যুবককে গ্রেফতার করল পুলিশ। ধৃত ব্য়ক্তি আবার বিজেপি সমর্থক বলে জানা গিয়েছে। 

আরও পড়ুন: পুরুলিয়ায় বন্ধ ঘরে আদিবাসী দম্পতির মুণ্ডহীন দেহ, ডাইনি অপবাদে খুন বলে অভিযোগ

ধৃতের নাম সুনীল মণ্ডল। বাড়ি, মেমারির কৃষ্ণবাজার এলাকায়। দিন কয়েক আগে দুর্গাপুজো নিয়ে সাম্প্রদায়িক উস্কানিমূলক বক্তব্য় এমনকী, মুখ্যমন্ত্রী ছবি ও প্রতীক বিকৃত করে তিনি ফেসবুকে পোস্ট করেন বলে অভিযোগ। সোশ্যাল মিডিয়ায় সেই পোস্টটি নজরে পড়ে মেমারি শহর তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি সৌরভ সাঁতরার। লিখিত অভিযোগ দায়ের করা মেমারি থানায়। সেই অভিযোগে ভিত্তিতে বৃহস্পতিবার রাতে বাড়ি থেকে সুনীলকে গ্রেফতার করে পুলিশ। 

আরও পড়ুন: অভাবের সংসারে পড়াশুনা বন্ধ হয়ে যাচ্ছিল ছাত্রীর, সাহায্য় করলেন 'দেবদূত' দীপক অধিকারী

পুলিশ সূত্রে খবর, এলাকায় বিজেপি কর্মী হিসেবে পরিচিত সুনীল। জেরায় তিনি স্বীকারও করেছেন, দিন কয়েক আগে একজনের একটি পোস্ট কপি করে ফেসবুকে পোস্ট করে। তবে পরে যখন জানতে পারেন পোস্টটি ভুয়ো, তখন ডিলিটও করে দেন। এর আগে দুর্গাপুজো নিয়ে একটি ভুয়ো পোস্ট ছড়িয়ে পড়ে সোশ্যাল মিডিয়ায়। পোস্ট রীতিমতো ভাইরাল হয়ে যায়। ওই পোস্টের দাবি, পুজোর চারদিন রাতে রাজ্যে কার্ফু জারি থাকবে। শুধু তাই নয়, অঞ্জলি দেওয়া ও বিসর্জন নিয়েও মিথ্যা তথ্য দেওয়া হয়। বলা হয়, অন্যন্যবারের মতো এবছর আর দুর্গাপুজোর বিসর্জনে শোভাযাত্রা করতে না দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। ঘটনাটি জানাজানি হওয়ার পুলিশ প্রশাসনকে কড়া ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় স্বয়ং।  দু'জনকে গ্রেফতারও করা হয়। ফের একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি ঘটল বর্ধমানে।