মাধ্যমিক পরীক্ষা চলছে। কিন্তু তাতে কি! রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে মাইক বাজানোর বিরাম নেই! এবার বিতর্ক জড়ালেন তৃণমূল কংগ্রেসের রাজ্যসভার সাংসদ ও শ্রমিক নেত্রী দোলা সেন। তাঁর সভার মাঝপথে অবশ্য পুলিশি হস্তক্ষেপে হলের বাইরে মাইক বন্ধ করে দেওয়া হয়। যদিও বাইক বাজিয়ে সভা করার অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছেন দোলা। 

আরও পড়ুন: বাবার ঋণ বকেয়া, মেয়েকে রূপশ্রী প্রকল্পের টাকা 'তুলতে' দিল না ব্যাঙ্ক

বৃহস্পতিবার এনআরসি, সিএএ ও এনপিআর বিরোধী সভা ছিল বর্ধমান শহরের লোকসংস্কৃতি মঞ্চে। সভার প্রধান বক্তা ছিলেন তৃণমূল কংগ্রেসের শ্রমিক নেত্রী দোলা সেন। তিনি আবার রাজ্যসভার সাংসদও বটে। হলের ভিতরে তো বটেই, এই সভা উপলক্ষ্যে শহরের প্রাণকেন্দ্রে একাধিক জায়গায় মাইক লাগানো হয়। মাইকে তৃণমূল নেতাদের ভাষণে রীতিমতো গমগম করছিল গোটা এলাকা। এদিকে তখন মাধ্যমিক পরীক্ষা চলছে! খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে হাজির হয় বর্ধমান থানার পুলিশ। পুলিশের হস্তক্ষেপে লোকসংস্কৃতি মঞ্চের বাইরে মাইকগুলি বন্ধ করা দেওয়া হয়। হলের ভিতরে অবশ্য মাইক বাজিয়েই সভা চলেছে বলে জানা গিয়েছে। 

আরও পড়ুন: হঠাৎই অ্যাকাউন্টে ঢুকছে হাজার হাজার টাকা, দেখে হতবাক গ্রাহক

কী বলছেন তৃণমূল কংগ্রেসের শ্রমিক নেত্রী দোলা সেন? মাইক বাজানোর অভিযোগ সরাসরি খারিজ করে দিয়েছেন তিনি। রাজ্যসভার সাংসদের বক্তব্য, 'অভিযোগ আমি মানি না। বাইরে কোথাও কোনও মাইক ছিল না। আমি নিজে আগে খেয়াল করেছি। হলের ভিতরে মাইক ছিল, বাইরে কোনও মাইক ছিল না।'

এর আগে হাওড়ায় একটি মেলার উদ্বোধন করতে গিয়ে মাইক বিতর্কে জড়ান রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। হাওড়ার শ্য়ামপুরের অনন্তপুরে প্রতিবছর শিবরাত্রির আগে মেলা বসে। বুধবার সন্ধ্যায় প্রদীপ জ্বালিয়ে মেলার উদ্বোধন করেন রাজ্যপাল। কিন্তু সেই অনুষ্ঠানে তারস্বরে মাইক বাজানো হয়। এমনকী, মেলার মাঠের বসানো হয় ডিজে বক্সও। ঘটনায় পুলিশের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন স্থানীয় বাসিন্দারা।