দু'দশকের দাম্পত্য জীবনে সন্তান সুখ অধরাই থেকে গিয়েছে। নিজের উদ্যোগে শেষকিনা স্বামীর দ্বিতীয়বার বিয়ে দিলেন স্ত্রীই! 'সতীন'কে সঙ্গে নিয়ে দিব্যি হাসিমুখে সংসার সামলাচ্ছেন ওই গৃহবধূ। শুনতে অবাক লাগলেও, এমনই ঘটনা ঘটেছে পূর্ব বর্ধমানের জামালপুরে। 

আরও পড়ুন: করোনা সতর্কতায় খোলা আকাশের নিচে রাত্রিবাস, সচেতনতার নজির পরিযায়ী শ্রমিকের

জামালপুরের শাহহোসেনপুর এলাকায় থাকেন আবু জাহির সাহানা। পেশায় তিনি রাজমিস্ত্রি। একুশ বছর আগে শাহিলা বেগম নামে এক মহিলার সঙ্গে বিয়ে হয় আবু-র। ওই দম্পতির কোনও সন্তান নেই। সেকারণে মানসিক কষ্টে ভুগছিলেন স্বামী-স্ত্রী দু'জনেই। কিন্তু সন্তানহীনতার কারণে সংসারে যে অশান্তি ছিল, তেমনটা কিন্তু নয়। স্থানীয় বাসিন্দারা জানিয়েছেন, অভাবকে সঙ্গী করে একে অপরকে নিয়ে সুখেই দিন কাটাচ্ছিলেন আবু ও শাহিলা। কিন্তু সন্তান ছাড়া কি দাম্পত্য পূর্ণতা পায়! শাহিলা সিদ্ধান্ত নেন, ফের স্বামীর বিয়ে দেবেন। আবুকে রাজিও করে ফেলেন তিনি। 

আরও পড়ুন: লকডাউনে মদ্যপ অবস্থায় রেসিং করে গাড়ি উঠল বেহালার ফুটপাথে, ঘটনাস্থলেই জখম ৫

জানা গিয়েছে, ১১ মে ধর্মীয় রীতি মেনে বছর একুশের পারভিন খাতুনকে বিয়ে করেছেন আবু জাহির সাহানা। দুই স্ত্রীকে নিয়ে একই বাড়িতে রয়েছেন তিনি। শাহিলা বেগম জানিয়েছেন, শারীরিক সমস্যার কারণে সন্তান ধারণ করতে পারছিলেন না তিনি। পারভিনের গর্ভে যদি সন্তান আসে, তাহলে তাঁকে নিজের সন্তানের মতোই মানুষ করবেন তিনি। আর আবু জাহির সাহানার কথায়, তাঁর প্রথম স্ত্রীর এই স্বার্থত্যাগ দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবে। শাহিলাকে কুর্নিশ জানিয়েছেন গ্রামবাসীরাও।