জেলার নেতা  কর্মী ও অনুগামীদের প্রবল বিক্ষোভের মুখে পড়ে অবশেষে পিছু হাঁটল বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব। আলিপুরদুয়ারে প্রার্থী হিসেবে নাম ঘোষণা করেও পরবর্তীকালে সরিয়ে দেওয়া হল প্রার্থীকে। বিজেপির প্রথম তালিকায় ঠাঁই পেয়েছিলেন তিনি। কিন্তু দ্বিতীয় তালিকা ঘোষণা করার সময় আলিপুরদুয়ারের প্রার্থী হিসেব তাঁর নাম বাদ দেয় বিজেপি। আলিপুরদুয়ারে অশোক লাহিড়ীর পরিবর্তে প্রার্থী করা হয়েছে সুমন কাঞ্জিলালকে। যদিও বিষয়টি নিয়ে এখনও পর্যন্ত মুখ খোলেননি অশোক লাহিড়ী। তিনি শুধু বলেছেন বিষয়নি পুরো তথ্য দিতে পারে একমাত্র বিজেপি নেতৃত্ব।  বৃহস্পতিবার মাত্র ১০টি আসন ছাড়া বাকি চার দফার জন্য ১৪৮ জন প্রার্থীর নাম ঘোষণা করেছে বিজেপি শীর্ষ নেতৃত্ব। তবে তাঁকে অন্য কোনও কেন্দ্রে প্রার্থী করা হবে কিনা সে বিষয়েও এখনও পর্যন্ত কিছু জানায় নি বিজেপি। 

গত রবিবার প্রথম তালিকা প্রাকাশ করেছিলে বিজেপি। সেই তালিকায় নাম ছিল অশোক লাহিড়ীর । কিন্তু তাঁর নাম ঘোষণার পরেই প্রবল ক্ষোভে ফেটে পড়েন আলিপুরদুয়ার সহ উত্তরবঙ্গে বিস্তীর্ণ এলাকার তৃণমূল স্তরের বিজেপি নেতা কর্মীরা। দলীয় কার্যালয়ের সামনে তাঁরা বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন। স্থানীয় বিজেপি কর্মী সমর্থকদের দাবি অশোক লাহিড়ী বহিরাগত। তাঁর সঙ্গে দলের তেমন কোনও যোগাযোগ নেই। যদিও সেইসময় বিজেপি নেতৃত্ব অশোক লাহিড়ীর ওপরেই আশা রেখেছিলেন। তুখর অর্থনৈতিক বিশেষজ্ঞ পরিস্থিতি সামাল দিয়ে সক্ষম হবে বলেও কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব আশা প্রকাশ করেছিল। কিন্তু বাস্তবে তা হয়নি। দিনে দিনে ক্ষোভ বাড়তেই থাকে দলীয় কর্মীদের। তাতেই বিজেপি শীর্ষ নেতৃত্ব  পিছু হাঁটে বলেও বলে করছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা। 

তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে গিয়েও শিকে ছিড়ল না, এখনও অপেক্ষার প্রহরে সোনালি গুহরা ...

'তুমি আমার বিগ্রহ', শোভন চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে বিজেপি ছাড়ার পর কেন একথা লিখলেন 'বান্ধবী' বৈশাখী ...
বিজেপি সূত্রের খবর আলিপুরদুয়ারে তাঁকে নিয়ে যে অসন্তোষ তৈরি হয়েছিল তা নিয়ে খুব একটা স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করেননি অশোক লাহিড়ী। সূত্রের খবর এখনও পর্যন্ত বিজেপিতে যোগ দেননি অশোক লাহিড়ী। কিন্তু প্রার্থী হওয়ার বিষয়ে তিনি আগ্রহী ছিলেন। তাঁকে নিয়ে দলে বেশ কিছু পরিকল্পনাও ছিল। বিজেপি সূত্রের খবর অশোক লাহিড়ীকে কলকাতার আশপাশে শহুরে এলাকা থেকে প্রার্থী করা হতে পারে। 

বৃহস্পতিবার বিজেপি যে প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করে তাতে রয়েছে ১৭ জন দলত্যাগী, ৮ জন মুসলিম, তিন জন সেলিব্রিটির নাম। প্রার্থী করা হয়েছে রাহুল সিনহা, মুকুল রায়, শুভ্রাংশু রায়, সব্যসাচী দত্ত, রথীন চক্রবর্তীর মতে হেভিওয়েটদের। আগামী দিনে নীলবাডির দখল নিতে মরিয়া চেষ্টা চালাচ্ছে বিজেপি। তবে প্রার্থী তালিকা নিয়ে স্থানীয় নেতা কর্মীদের মধ্যে ক্ষোভ অব্যাহত হয়েছে। তবে বিজেপি কেন্দ্রীয় নেতৃত্বও চেষ্টা করছে পুরোন ও নতুনদের মধ্যে সামঞ্জস্য বজায় রেখে তালিকা প্রকাশ করতে।