গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ৩২৮। আর ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু হয়েছে ১২ জনের। এপর্যন্ত দেশে করোনাভাইরাসে সংক্রমিত হয়ে মৃত্যু হয়েছে ৫০ জনের আক্রান্ত হয়েছেন ১,৯৬৫ জন। বৃহস্পতিবার জানিয়েছে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রক। মন্ত্রকের তরফ থেকে জানান হয়েছে করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে অন্যতম হাতিয়ার লকডাউন। তাই লকডাউন উপেক্ষা করে বাড়ির বাইরে না বার হওয়ায়ই শ্রেয়। করোনাভাইরাস সংক্রান্ত কোনও তথ্য সরবরাহ করার জন্য অনলাইনে বিশেষ ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রক। করোনাভাইরাস নিয়ে ফেক নিউজ না ছড়ানোর আর্জি জানিয়েছে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক। ফেক নিউজ চেক করার জন্য বিশেষ ব্যবস্থা গ্রহণ করাও হয়েছে। 

 

কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের তরফ থেকে জানান হয়েছে এখনও পর্যন্ত ৯ নিজামুদ্দিনের ধর্মীয় অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণকারী ৯ হাজার তাবলিগি জামাত কর্মীকে চিহ্নিত করা হয়েছে। তাঁরা প্রত্যেকেই দেশের বিভিন্ন প্রান্তে ছড়িয়ে রয়েছে। তাদের প্রত্যেককেই কোয়ারেন্টাইনে পাঠান হয়েছে। ধর্মীয় অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে ১৩০৬ জন বিদেশী। বাকিরা প্রত্যেকেই ভারতীয়। যাদের মধ্যে দিল্লির বাসিন্দা প্রায় ২ হাজার। ৩৩৪ জন হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে। বাকি প্রত্যেকেই কোয়ারেন্টাইনে থাকতে বলা হয়েছে। 

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের তরফ জানান হয়েছে প্রায় দেড় কোটি পার্সোলান প্রোটেকশন ইকিউপমেন্টে অর্ডার দেওয়া হয়েছিল। ইতিমধ্যেই যা সরবরাহ করা শুরু হয়েগেছে। এক কোটিরও বেশি এন৯৫ মাস্কেরও অর্ডাল দেওয়া হয়েছে। চিকিৎসক ও নার্সদের নিরাপত্তার দিকেও বিশেষ গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে। 

এদিন স্বাস্থ্য মন্ত্রকের তরফ থেকে জানান হয়েছে গোটা দেশে ৫০ জন চিকিৎসক, নার্স ও স্বাস্থ্য কর্মী এখনও পর্যন্ত করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। 

আরও পড়ুনঃ শুক্রবার সকালে ফের দেশবাসীর উদ্দেশ্যে বিশেষ বার্তা, কী বলতে চলেছেন মোদী, জল্পনা তুঙ্গে

আরও পড়ুনঃ করোনা থেকে রেহাই নেই সদ্যোজাতর, মুম্বইতে আক্রান্ত ৩ দিনের শিশু ও মা