করোনাভাইরাসের এখনও কোনও প্রতিষেধক তৈরি হয়নি। বিশ্বজুড়ে গবেষণা চললেও এখনও ওষুধ আবিষ্কার করতে আরও বেশ খানিকটা সময় লাগবে বলেই জানাচ্ছেন বিজ্ঞানীরা। এই অবস্থায় মারণ এই ভাইরাস থেকে বাঁচতে হলে একমাত্র উপায় সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা । আর সেই কারণেই অর্থনৈতিক ক্ষতি স্বীকার করেও লকডাউনের পথে হাঁটছে একের পর এক দেশ। ভারতকেও অবলম্বন করতে হয়েছে এই পন্থা। দেশজুড়ে চলছে ২১ দিনের লকডাউন। সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে বন্ধ স্কুল, কলেজ, অফস-কাছারি, আদালত, কল-কারখানা, সিনেমাহল, শপিং মল সবকিছুই। বারবার প্রশাসন মানুষকে ভিড়ে এড়িয়ে চলার পরামর্শ দিচ্ছে। সেকরাণে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে জমায়েতের উপর। বারবার মানুষকে বাড়ির বাইরে যেতে নিষেধ করা হচ্ছে। আর এসবের মধ্যেই  নিয়মভাঙার ছবি ধরা পড়ল খোদ হাসপাতালের মধ্যেই।

হায়দরাবাদের গান্ধী হাসপাতালে চলছে করোনা আক্রান্তদের চিকিৎসা। সেখানেই দেখা গেল হাসপাতালের কোয়ারেন্টাইনে থাকা রোগীর দল একে অপরের গাঁ ঘেষে নামাজ পাঠ করে চলেছেন। সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার কোনও নিয়মই মানা হয়নি আইসোলেশন ওয়ার্ডে। 

 

 

দিল্লির নিজামুদ্দিন মার্কেজে ধর্মীয় অনুষ্ঠানে অংশ নিয়েছিলেন তেলেঙ্গানার প্রায় ১২০০ মানুষ। এদের মধ্যে ৭০০ জনের এখনও পর্যন্ত সন্ধান পয়েছে পুলিশ। তাঁদের বিভিন্ন হাসপাতালের কোয়ারেন্টাইন করে রাখা হয়েছে। এদের মধ্যে ৫০ জনের শরীরে করোনা সংক্রমণের প্রমাণ মিলেছে। 

একা নিজামুদ্দিনে রক্ষা নেই, এবার কারফিউয়ের মাঝেই জমায়েত রাজস্থানের দরগায়

করোনা অভিযানে গিয়ে আক্রান্ত স্বাস্থ্যকর্মীরা, পালাতে হল চিকিৎসককে, দেখুন সেই লজ্জাজনক ভিডিও

করোনা আতঙ্কের মাঝে ফের চিকিৎসক নিগ্রহের ঘটনা, এবার হামলা চালাল খোদ কোভিড ১৯ আক্রান্ত

বুধবার হায়দরাবাদে নতুন করে ৩০ জনের শরীরে করোনা সংক্রমণের খবর পাওয়া গিয়েছে। ফলে তেলেঙ্গানায় বর্তমানে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা গিয়ে দাঁড়িয়েছে ১২৯। অন্যদিকে তেলেঙ্গানার প্রতিবেশী রাজ্য অন্ধ্রপ্রদেশে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন সংক্রমণের খবর পাওয়া গিয়েছে ৬৭টিষ ফলে রাজ্যটিতে একলাফে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১১১। নতুন করোনা আক্রান্তরা প্রায় সকলেই দিল্লির নিজামুদ্দিনে ধর্মীয় অনুষ্ঠানে অংশ নিয়েছিলেন।