শুধুমাত্র দেশের গরীব মানুষদেরই করোনাভাইরাস পরীক্ষা করা হবে বিনামূল্য। সোমবার এমনই নির্দেশ দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট। দুই বিচারপতি অশোক ভূষণ ও এস রবিন্দর ভাটের বেঞ্চ অ জানিয়েছে, যারা করোনাভাইরাস পরীক্ষার জন্য ৪৫০০ টাকা দিতে পারবেন  না তাঁদের পরীক্ষাই বিনামূল্য করাতে হবে সরকারকে। পাশাপাশি আরও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে আয়ুস্মান ভারত প্রকল্পের অধীনে যাঁরা রয়েছেন তাঁদের করোনাভাইরাস পরীক্ষা করাতে কোনও টাকা দিতে হবে না। 

গত সপ্তাহেও সুপ্রিম কোর্ট বেসরকারি ল্যাবগুলিতে বিনামূল্য করোনাভাইরাসের পরীক্ষা করানোর পক্ষেই সওয়াল করেছিল। প্রয়োজনে কেন্দ্র ও রাজ্য সরকারগুলিকে বেসরকারি ল্যাবের টাকা মিটিয়ে দেওয়ার প্রস্তাবও দেওয়া হয়েছিল। তবে দিল্লি একটি চিকিৎসক সওয়াল করেছিল এই পদ্ধতি অবলম্বন করলে বেসরকারি ল্যাব গুলির ওপর আর্থিক বোঝা হয়ে দাঁড়াবে। যা তাদের বহন করার ক্ষমতা থাকবে না। পাশাপাশি কেন্দ্রীয় সরকারও প্রচুর পরীক্ষা করাতে পারবে না।  তাই অবস্থান থেকে  কিছুটা পিছিয়ে এসেই আর্থিকভাবে পিছিয়ে পড়া মানুষদের বিনামূল্যে করোনা পরীক্ষার ওপর জোর দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট। আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে কেন্দ্রীয় সরকারকে সিদ্ধান্ত জানাতে হবে বলেও নির্দেশ দিয়েছে শীর্ষ আদালত। 

আরও পড়ুনঃ দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে, কী করে সেখানে উল্টো ছবি দেখাচ্ছে কেরল
আরও পড়ুনঃ লকডাউনের মধ্যেই এইচডিএফসির শেয়ার অধিগ্রহণ চিনের ব্যাঙ্কের, দেশের কর্পোরেট সংস্থা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ .
আরও পড়ুনঃ রোগমুক্তির পরেও রেহাই নেই, করোনা আক্রান্তকে 'সামাজিক বয়কট' মধ্য প্রদেশে

তবে শীর্ষ আদালত জানিয়েছে, দেশের আর্থিকভাবে দুর্বল ও নিম্ন আয়ের মানুষের বিনামূল্য করোনাভাইরাস পরীক্ষার ব্যবস্থা করা যায় কিনা তা কেন্দ্রীয় সরকার ও স্বাস্থ্য মন্ত্রক যৌথ উদ্যোগে সিদ্ধান্ত নিতেই পারে।