করোনাকে প্রতিহত করতে লড়াই চালিয়ে যাচ্ছেন তিনি। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে আরও শক্তি দেওয়ার জন্য ঈশ্বরের শরণাপন্ন হলেন তৃণমূল কংগ্রেস নেতারা। যজ্ঞের আয়োজন করা হল তারাপীঠ শ্মশানে। 

আরও পড়ুন: করোনা প্রতিরোধে 'রাস্তায় নামা'র নিদান, বিতর্কে আসানসোলের তৃণমূল কাউন্সিলর

তেমন বড় জমায়েত হয়নি। পুরোহিত ছাড়া তারাপীঠ শ্মশানে যজ্ঞস্থলে হাজির ছিলেন বীরভূম জেলার সাধারণ সম্পাদক ত্রিদিব ভট্টাচার্য, রামপুরহাট ২ নম্বর ব্লকের যুব সভাপতি প্রেমানন্দ মণ্ডল-সহ তৃণমূল কংগ্রেসের জনা চারেক নেতা। এই যজ্ঞের প্রধান আয়োজক ও শাসকদলের  রামপুরহাট ২ নম্বর ব্লক সভাপতি সুকুমার মুখোপাধ্যায় বলেন, 'ভাইরাসের বিরুদ্ধে সামাজিক ও বিজ্ঞানভিত্তিক লড়াই তো চলছেই। তবে মা তারা শক্তিও অপরিসীম। আমরা যজ্ঞের মাধ্যমে তাঁর কাছে প্রার্থনা জানালাম, করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে পশ্চিমবঙ্গের মমতাময়ী মা-কে আরও শক্তি দাও, আরও ক্ষমতা দাও। ভারতবর্ষকে করোনামুক্ত করো।' কিন্তু হঠাৎ যজ্ঞ কেন? তৃণমূলের ব্লক সভাপতির বক্তব্য, আমাদের জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল ঈশ্বরবিশ্বাসী। সবধর্মকেই শ্রদ্ধা করেন তিনি। তাঁর ইচ্ছাতেই এই যজ্ঞের আয়োজন করা হয়েছে।'

আরও পড়ুন: সরকারি নির্দেশকে বুড়ো আঙুল, লকডাউনেও ছুটি নেই গ্লাস কারখানার শ্রমিকদের

এদিকে করোনা মোকাবিলায় তৃণমূলের এই যজ্ঞকে কটাক্ষ করেছেন সিপিএম নেতা ও দলের বীরভূম জেলা সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য সঞ্জীব বর্মণ। তাঁর বক্তব্য, 'করোনা আতঙ্কে সারা পৃথিবী সন্ত্রস্ত। সকলেই ঘরে থাকতে বলছেন মুখ্যমন্ত্রী ও প্রধানমন্ত্রী। চিকিৎসকদের পরামর্শ মেনে চলা উচিত। এখন যজ্ঞ করা মানে অসভ্য়তা। আশা করব, মুখ্যমন্ত্রীর দলের নেতাদের শুভবুদ্ধির উদয় হবে।'