করোনা সংক্রমণে বর্তমান বিশ্বে এক নম্বরে রয়েছে পৃথিবীর সবচেয়ে শক্তিশালী দেশ আমেরিকা। ম্যালেরিয়ার ওষুধ হাইড্রক্সিক্লোরোকুইন দিয়েই সেখানে চিকিৎসা চলছে করোনা আক্রান্তদের। এই পরিস্থিতিতে ভারত তাদের ওষুধ রফতানি না করলে ফল ভুগতে হবে। নরেন্দ্র মোদীকে সম্বোধন করে থাকা ডোনাল্ড ট্রাম্প এভাবেই হুমকি দয়েছিলেন ভারতকে। যদিও বিশ্বের করোনা পরিস্থিতি দেখে হাইড্রক্সিক্লোরোকুইন  ও প্যারাসিটামল জাতীয় ওষুধ রফতানিতে আংশিক ভাবে নিষেধাজ্ঞা তুলে নিয়েছে ভাকত সরকার। তারপরেই সুরবদল করে মোদীকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন ট্রাম্প। আর এই পরিস্থিতিতে এবার ভারতের কাছে সাহায্যের আবেদন জানালেন ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট জাইর বোলসোনারো।

মার্কিন প্রেসিডেন্টের সঙ্গে হাবে ভাবে অনেকটাই মিল রয়েছে ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট জাইর বোলসোনারোর। সেই কারণে  'ট্রপিকালের ট্রাম্প' বলে  তাঁকে আখ্যায়িত করে থাকেন অনেকেই। তবে ভারতের কাছে রীতিমত হুমকি দিয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ওষুধ চেলেও সেই সাহস দেখাননি বোলসোনারো। বরং পুরাণ থেকে রামায়ণের দোহাই দিয়ে মোদীর কাছে ওষুধ  ভিক্ষা করেছেন ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট।

এবার একেবারে আর্থিক সাহায্য বন্ধের হুঁশিয়ারি, চিন নিয়ে ফের 'হু'-কে ধমকালেন ট্রাম্প

করোনা আক্রান্ত বিশ্বকে পথ দেখাল উহান, লকডাউনের ৭৬ দিন পর একেবারে স্বাভাবিক জীবনে শহরবাসী

১৪ এপ্রিলের পরেও বাড়ছে লকডাউনের সময়, সর্বদল বৈঠকে ইজ্ঞিত দিয়ে রাখলেন প্রধানমন্ত্রী

সারা বিশ্বে  হাইড্রক্সিক্লোরোকুইনের সর্ববৃহত প্রস্তুতকারক দেশ হল ভারত। করোনা মহামারীর প্রকোপ দেশে  বাড়ার পরেই এই ওষুধ রফতানিতে নিষেধাজ্ঞা জারি করে ভারত সরকার। তবে মঙ্গলবার সেই নিষেধাজ্ঞা কিছুটা হলেও শিথিল করেছে ভারত সরকার। আর তারপরেই মোদীর কাছে সাহায্য চেয়ে চিঠি লিখে ফেললেন ট্রপিকালের ট্রাম্প। 

চিঠিতে ভারতের হাইড্রক্সিক্লোরোকুইন রফতানির প্রসঙ্গে রামায়ণের একটি ঘটনার উদাহরণ টেনে এনেছেন বোলসোনারো। ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট ভারতের এই সাহায্যের তুলনা করেছেন রামায়ণে লক্ষ্মণের প্রাণ বাঁচানোর জন্য হনুমানের  সঞ্জীবনী বুটি নিয়ে আসার সঙ্গে। 

জাইর বোলসোনারো লিখেছেন, ' রামায়ণে হনুমান জি প্রভু রামের ভাই লক্ষণের জন্য সঞ্জীবনী বুটি নিয়ে এসেছিলেন, ঠিক সেভাবেই করোনা  ভাইরাসের মহামারীর সময়ে ভারত  ব্রাজিলের সহায়তা করছে।'

ব্রাজিলের অনুরোধ শোনার পরেই আমেরিকার মতোই করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় সেখানে ওষুধ পাঠিয়েছে ভারত। এর জন্য  প্রধানমন্ত্রী মোদীকে ধন্যবাদও জানিয়েছে ব্রাজিল সরকার। আর বোলসোনারো লিখেছেন, 'বিশ্বের এই কঠিন সময়ে ভারত ও ব্রাজিল এক হয়ে লড়াই করবে। একে অপরের সঙ্গে আশীর্বাদ এবং ক্ষমতা ভাগ করে নেবে করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে জিততে। আর এই সব করতে হবে মানুষের কল্যাণের কথা মাথায় রেখেই।’