সারা বিশ্ব জুড়ে দাপিয়ে বেড়াচ্ছে কোবিড ১৯। প্রতিটি মানুষের মনে ত্রাস সৃষ্টি করেছে এই মারণ ভাইরাস। ভারতে এই পর্যন্ত করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ৬৫৭ তার মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ১৩ জনের। সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৪৩ জন রোগী। এখনও চিকিৎসাধীন রয়েছেন ৬০১ জন। আর সারা বিশ্বজুড়ে ৪,৭২, ৮৮২ জন আক্রান্ত হয়েছেন। এর মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ২১,৩১৫ জনের, সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন ১,১৪,৭৭৫ জন। তবে বুঝতেই পারছেন মৃত্যুর হার তুলনামূলক কম। তবে সাবধাণতা অবলম্বন করা খুব জরুরি। ইতিমধ্যেই বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা 'হু' বিশ্ব লকডাউনের কথা জানিয়েছে।

আরও পড়ুন- করোনা মোকাবিলায় নতুন উদ্যোগ, বিশ্বজুড়ে বিনামূল্য করা হল নিষিদ্ধ ছবি দেখা

করোনা আক্রান্ত রুখতে শুরু থেকেই তৎপর ভারত। এই তৎপরতার কারণেই ভারতের প্রশংসাও করেছে হু। করোনা ঠেকাতে আপাতত তালাবন্ধ গোটাদেশ। এবার সে পথেই হাঁটতে চলেছে পাকিস্তান। সারা বিশ্বকে নাড়িয়ে দিয়ে করোনার ভয় বাড়ছে পাকিস্তানেও। করোনা আক্রান্তের জেরে লকডাউন হতে চলেছে পাকিস্তানেও। ইতিমধ্যেই সে দেশে আক্রান্ত হয়েছেন ১০৩৫ জন। যার সংখ্যার ভারতের থেকেও বেশি। সব থেকে বেশি আক্রান্ত হয়েছে সিন্ধ প্রদেশ। এমন অবস্থায় করোনা পরিস্থিতি সামাল দিতে তৎপর পাক।

আরও পড়ুন- করোনার ভয়ে দিল্লি থেকে পালিয়ে নদিয়াতে তরুণী, বাড়ি ফিরেই উপসর্গ নিয়ে আইসোলেশনে

জানা গিয়েছে, সে দেশে ৪ এপ্রিল পর্যন্ত বন্ধ রাখা হয়েছে অভ্যন্তরীণ বিমান পরিষেবা। এছাড়া ৩১ মার্চ অবধি বন্ধ থাকবে রেল পরিষেবাও। পাকিস্তানের পাঞ্জাব প্রদেশে ইতিমধ্যেই বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। লহোরে আমাদের দেশের মতোই শুধু প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র নেওয়ার জন্য বাইরে যাওয়ার অনুমতি রয়েছে। পাশপাশি পাক অধিকৃত কাশ্মীরে আংশিক লকডাউন ঘোষনা করা হয়েছে। বালুচিস্তানেও যাতায়াতের ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলায় সামরিক সেনাবাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে।