প্রথম ম্যাচে শতরান করেছিলেন রোহিত শর্মা। পরের ম্যাচেই রানে ফিরলেন গব্বর। রবিবার অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে ওভালে মাত্র ৯৫ বলে তিনি শতরান পূর্ণ করেন। এটা তাঁর কেরিয়ারের ১৭তম শতরান। আর বিশ্বকাপে এই নিয়ে তাঁর তৃতীয় শতরান হল। আর শতরান করার পথে তিনি মোট ১৬টি চার মেরেছেন। তবে শেষ পর্যন্ত ১১৭ রানেই আউট হন তিনি।

এদিন টসে জিতে প্রথমে ব্য়াট করার সিদ্ধান্ত নেয় বিরাট কোহলির ভারত। আর প্রথম থেকেই খেলার রাশ হাতে নিয়ে নেন রোহিত শর্মা ও শিখর ধাওয়ান। প্রথম দিকে রোহিতকে বেশ কয়েকবার পরাস্ত করে চাপের মুখে ফেলেছিলেন কামিন্স ও স্টার্ক। তাঁর কাঁধ থেকে চাপ কমাতে এগিয়ে আসেন শিখর ধাওয়ান। এদিন পিচে বল ভালভাবে ব্যাটে আসতে শুরু করতেই কথা বলতে শুরু করে শিখর ধাওয়ানের।

তবে প্রথম পাওয়ার প্লে-র মধ্যেই কামিন্সের একটি বাউন্সার তাঁর হাতের আঙুলে আঘাত করে। কিন্তু, এদিন গব্বরকে থামানো যায়নি। আইসিসি পরিচালিত টুর্নামেন্ট হলেই যেন তাঁর কি একটা হয়। এদিন আঙুলে চোট পাওয়ার পরও তিনি সমানভাবে ব্যাট করে গেলেন। রোহিত শর্মার সঙ্গে ১২৭ রানের জুটি গড়েন। ২৩তম ওভারে কামিন্সের বলে রোহিত ফিরে যান।

কোহলি নামলে তাঁকে সেট হওয়ার সময় দিয়ে আরও আগ্রসী ভূমিকা নেন শিখর। ৩২.২ ওভারে মার্কাস স্টইনিসের বল মিড অফে ঠেলে একরান নিয়ে শতরান পূর্ণ করেন।

তাঁর ওপেনিং অংশীদার রোহিত শর্মাকে নিয়ে গব্বর এদিন অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে সেরা ওপেনিং জুটি হওয়ার রেকর্ডও করলেন। এর আগে এই রেকর্ড ছিল প্রখ্যাত ক্যারিবিয়ান ওপেনিং জুটি গর্ডন গ্রিনিজ ও ডেসমন্ড হেনসের হাতে। তাঁরা করেছিলেন ১১৫২ রান। এদিন সাতটি ইনিংস কম খেলেই রোহিত-শিখর তাঁদের পার করে গেলেন।

শুধু তাই নয়, এদিন রোহিত শর্মা তৃতীয় ক্রিকেটার হিসেবে একদিনের ক্রিকেটে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে ২০০০ রান পূর্ণ করলেন।