চলতি বিশ্বকাপের সবচেয়ে অনিশ্চিত দুটি দল বলা হচ্ছে পাকিস্তান ও শ্রীলঙ্কাকে। পাকিস্তান দল তো বরাবরই অনিশ্চয়তায় ভরা। আর এইবার শ্রীলঙ্কাও অদ্ভূত ভেল্কি দেখাচ্ছে। প্রথম ম্যাচে ভরাডুবির পর, দ্বিতীয় ম্যাচে আফগানিস্তানের সঙ্গে দারুণ বোলিং-এ জিতে নিয়েছে ম্য়াচটি। শুক্রবার এই দুই 'আনপ্রেডিক্টেবল' দলের খেলাও অনিশ্চিত হয়ে গেল।

রামমোহন রায়ের স্মৃতি মাখা ব্রিস্টল শহরে আচমকাই এদিন সকাল থেকে প্রবল বৃষ্টি শুরু হয়েছে। অবস্থা এতটাই গুরুতর যে শহরে হলুদ সতর্কতা জারি করা হয়েছে। ম্যাচ শুরু করা তো অনেক পরের কথা, একঘন্টা পার হয়ে গেলেও এখনও টসও করা যায়নি। অবস্থা এতটাই খারাপ যে ম্য়াচ আদৌ শুরু করা যাবে কিনা তাই নিয়েই সংশয় রয়েছে। অনেকেই বলছেন যদি শেষ পর্যন্ত খেলা হয়ও, তাহলে সম্ভবত একদিনের বিশ্বকাপে প্রথম টি২০ ম্য়াচ দেখা যাবে।

একমাত্র দুটি সেমিফাইনাল এবং ফাইনাল ম্যাচের জন্য বাড়তি দিন রাখা হয়েছে। কিন্তু রাউন্ড রবিন লিগের ম্যাচের জন্য কোনও বাড়তি দিন রাখা হয়নি। কাজেই এদিন যদি শেষ পর্যন্ত খেলা শুরু করা না যায় তাহলে ম্যাচটিই বাতিল হবে। পয়েন্ট ভাগাভাগি হয়ে যাবে দুই দলের মধ্যে।

ইংল্যান্ড ও ওয়েলস-এ গরমকালটা বেশ শুকনোই থাকবে আশা করা হয়েছিল। কিন্তু ইতিমধ্যেই বেশ কিছু ম্যাচে প্রভাব ফেলেছে বৃষ্টি। ম্যাচের সময় কমাতে হয়েছে, কমেছে ওভার সংখ্যা। মূল বিশঅবকাপ শুরুর আগে দুটি অনুশীলন ম্যাচও বৃষ্টিতে ভেস্তে গিয়েছে।

ইংল্যান্ড ও ওয়েলস-এর আবহাওয়াও পাকিস্তান ক্রিকেট দলের মতোই অনিশ্চয়তায় ভরা। এমন জায়গায় বিশ্বকাপের মতো বড় টুর্নামেন্টে রাউন্ড রবিন লিগেও কেন বাড়তি দিন রাখা হল না তাই আইসিসির সমালোচনা শুরু হয়েছে। সেই সঙ্গে এখন থেকে সব ক্রিকেট মাঠেই প্রয়োজনে ছাদ ঢেকে দেওয়ার ব্যবস্তা করা উচিত কিনা তাই নিয়েও আলোচনা শুরু হয়েছে।