চাচা ইনজামাম-উল-হককে মনে করালেন ভাইপো ইমাম-উল-হক। না ব্য়াটিং স্কিলে নয় আউটের ধরণটা ঠিক সেইরকম। আর তাতেই ২০০৬ সালে দেওয়া এক টিটকিরি ফিরে এল লর্ডসের গ্য়ালারিতে - 'ইউ ফেল ওভার' (তুমি পড়ে গিয়েছ)। চাচার টিটকিরি শুনতে হল ভাইপোকেও।

বিষয়টা খুলে বলা যাক। এদিন পাকিস্তান-বাংলাদেশ ম্যাচে শতরান করার পরই আউট হয়ে যান পাক ওপেনিং ব্য়াটসম্যান ইমাম-উল-হক। বল করছিলেন মুস্তাফিজুর রহমান। তাঁর একটি উপরে করা বল ইমাম পিছিয়ে এসে স্কোয়্যার লেগে ফ্লিক করতে চেয়েছিলেন। কিন্তু পিছনের পা টা এতটাই পিছিয়ে দিয়েছিলেন যে তা উইকেটে লেগে বেল পড়ে যায়। হিট উইকেট আউট দেওয়া হয় তাঁকে।

আরও পড়ুন - আরেক আফ্রিদির উদয়! মাথা উঁচু করেই অভিযান শেষ করল পাকিস্তান

আরও পডুন - বিদায়ী ম্যাচ নয়, শোয়েব মালিককে বিদায়ী নৈশভোজ দেওয়া হোক! কেন বলছেন আক্রম

আরও পড়ুন - দুর্বার গতিতে এগোচ্ছেন বাবর, রেকর্ড বলছে রান করছেন 'আদর্শ' কোহলির থেকেও দ্রুত

তার কয়েক মুহূর্ত আগেই লর্ডসের গ্যালারি তাঁকে শতরান করার জন্য উঠে দাঁড়িয়ে হাততালি দিয়ে অভিবাদন জানাচ্ছিল। আপটটা এমন আকস্মিক হয় যে দর্শকদের বুঝে উঠতে কিছুটা সময় লাগে। আর তারপরই তাদের মনে পড়ে যায় ইমামের চাচা, অর্থাত ইনজামাম-উল-হকের এই মাঠেই হাস্যকর ভাবে আউট হওয়ার ঘটনার কথা।

সেটা ছিল ২০০৬ সাল। ইংল্যান্ড সফরে এসেছিল ইনজামামের নেতৃত্বাধীন পাকিস্তান দল। তৃতীয় টেস্ট চলাকালীন মন্টি পানেসার-এর বলে হিট উইকেট হয়েছিলেন ইনজি। মন্টির বলে সুইপ করতে গিয়েছিলেন তখনকার পাক অধিনায়ক। কিন্তু ভারি শরীরে ভারসাম্য রাখতে পারেননি। সুইপের সুযোগটা নষ্ট করার পরই উিকেটের উপর দিয়ে লাফিয়ে বাঁচার চেষ্টা করেছিলেন। কিন্তু পরেন গিয়ে প্রায় উইকেটের উপরই। ফলে হিট উইকেট হতে হয়েছিল তাঁকে।
 

১৩ বছর পর ভাইপোও একই ভাবে আউট হলেন। আর একবার এটা মাথায় ঢোকার পরই লর্ডসের গ্যালারি ওই বিদ্রুপ-ধ্বণি শুরু করেছিল। সদ্য বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে গিয়ে পাক সমর্থকদের মন আপাতত বিষন্ন। তবে দিন কয়েকের মধ্যেই ইমাম আর ইনজামাম-এর একইভাবে আউট হওয়া নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় তাদের চর্চা নিশ্চয়ই শুরু হয়ে যাবে।