রবিবার বিশ্বকাপের ২০১৯-এর সবচেয়ে বড় ম্যাচে আরও একটি শতরান করলেন 'হিটম্যান' রোহিত শর্মা। গত বছরই তাঁর এক কন্যা সন্তান হয়েছে। এদিন মেয়ের প্রথম 'ফাদার্স ডে' রোহিত স্মরণীয় করে রাখলেন কেরিয়ারের ২৪তম তথা চলতি বিশ্বকাপের দ্বিতীয় শতরান করে। শতরানে পৌঁছতে ভারতীয় সহ-অধিনায়ক নেন মাত্র ৮৫টি বল। মারেন ৯টি চার ও ৩টি ছয়।

এদিন শিখর ধাওয়ানের অনুপস্থিতিতে রোহিত প্রথম থেকেই আগ্রাসী ব্যাটিং করেন। তাঁকে যোগ্য সহায়তা দিয়েছেন কেএল রাহুলও দুজনে প্রথম উইকেটের জুটিতে ১৩৬ রান তোলেন ২৪ ওভারে। এরপর ৫৭ রানে রাহুল ফিরে গেলেও দুর্দান্ত ব্যাট করছেন রোহিত ২২ গজে তাঁর সঙ্গে যোগ দিয়েছেন অধিনায়ক বিরাট কোহলি।

রোহিতের এদিনের শতরান বিশ্বকাপে ভারতীয়দের মধ্যে দ্বিতীয় দ্রুততমও বটে। বাংলাদেশের বিরুদ্ধে তাঁর প্রথম বিশ্বকাপ শতরানটি করতে ৮৩ বল নিয়েছিলেন। একই সঙ্গে এটি পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ভারতীয়দের তৃতীয় দ্রুততম শতরান। প্রথম দুই দ্রুততম শতরানের রেকর্ড রয়েছে বীরেন্দ্র সএওয়াগের ঝুলিতে। ২০০ সালে করাচিতে সেওয়াগ শতরান করেছিলেন ৮০ বলে। যা পাকিস্তানের বিরুদ্ধে দ্রুততম ভারতীয় শতরান। আর তার তিন বছর আগে কোচিতে একই প্রতিপক্ষের ব্রুদ্ধে শতরান পেয়েছিলেন ৮৪ বলে।

এদিন আবার ফাদার্স ডে-ও বটে। গত বছর ভারতের অস্ট্রেলিয়া সফর চলাকালীন এক কন্যা সন্ত্বানের বাবা হন রোহিত। এই ফাদার্স ডেই তাঁর মেয়ের জীবনের প্রথম। এইদিন এই দুর্দান্ত শতরানের মাধ্যমে মেয়েকে এক অনন্য উপহারও দিলেন তিনি।