রবিবার বিশ্বকাপ ২০১৯-এর ২৮তম ম্যাচে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে ভারতের অপরাজেয় দৌড় থেমে গিয়েছে। তবে ভারতের হারের থেকেও ভারতীয় দলের পরাজয়ের জঘন্য ধরণই বেশি আলোড়ন তুলেছে ক্রিকেট মহলে। হাতে ৫টি উইকেট থাকা সত্ত্বেও ধোনি ও কেদার যাদব শেষ দিকে এত মন্থর ব্যাটিং করেছেন যা প্রায় অবিশ্বাস্য মনে হয়েছে। আর এরপরই ন্যাশনাল কনফারেন্স দলের নেতা ওমর আবদুল্লা ভারতীয় দলের জেতার ইচ্ছা নিয়ে বড় প্রশ্ন তুলে দিয়েছেন।

তাঁর ভাষায় ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে ভারতের জেতার কোনও তাগিদ ছিল না। তাঁর প্রশ্ন ইংল্যান্ড বা পাকিস্তানের বদলে এই ম্যাচের উপর যদি ভারতের সেমিফাইনাল ভাগ্য নির্ভর করে থাকত তাহলেও কি ভারত এইরকম উদাসীন ভাবে ব্য়াট করে যেতে পারত?

শেষ ১০ ওভারে ভারতের দরকার ছিল ১২২ রান। যখন ওভার প্রতি ১১-১২ রান করে দরকার ছিল, তখন ধোনি ও কেদার যাদব একের পর এক খুচরো রান নিয়ে গিয়েছেন। অথচ হাতে উইকেট ছিল। তাঁদের মারতে না চাওয়া নিয়েই ক্রিকেট মহল বিস্মিত। এবার ওমর আরও বড় প্রশ্ন তুললেন। এর আগে পাকিস্তানের প্রাক্তন ক্রিকেটার বাসিত আলি অভিযোগ করেছিলেন পাকিস্তানের সেমিফাইনালে ওটা আটকাতে ভারত ইচ্ছা করে ম্যাচ ছেড়ে দিতে পারে। ওমরও কি সেই দিকেই ইঙ্গিত করলেন, এই প্রশষ্ন কিন্তু উঠছে।