বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্ব থেকেই তারা বিদায় নিয়েছেন। সেমিফাইনাল কেলার খুব কাছাকাছি এসেও শেষ রক্ষা হয়নি পাকিস্তানের। ব্য়াগ-পত্তর গুটিয়ে বাড়ি চলে এসেছেন সরফরাজরা। কিন্তু ক্রিকেট প্রেমীরা সম্ভবত মন থেকে তাঁদের এখনও বিদায় দিতে পারছেন না। নাহলে দুটি সেমিফাইনালের একটিরও অংশ না হয়েও, শেষ চারের খেলা হওয়ার আগে সোশ্যাল মিডিয়ায় তাঁদের নিয়েই চর্চা হবে কেন?

মঙ্গলবার ওল্ড ট্রাফোর্ডে ভারত বনাম নিউজিল্যান্ড, ক্রিকেট বিশ্বকাপ ২০১৯-এর প্রথম সেমিফাইনালের খেলা চলছে। কিন্তু, এইদিন ফের একটি ভারত-পাক ম্য়াচ হতে পারত। ১৫ পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপে প্রথম হয়ে সেমিফাইনাল খেলতে নেমেছে ভারত। চতুর্থ স্থানে ছিল নিউজিল্যান্ড। কিউদের কিন্তু গ্রুপ ম্য়াচে হারিয়েছিল পাকিস্তান। তাদের পয়েন্টও ব্ল্য়াকক্যাপসদের সমান ছিল। নেট রানরেটে পিছিয়ে পড়ে শেষ চারে যাওয়া হয়নি সরফরাজদের।

তারপরেও নেটিজেনদের চর্চায় সরফরাজরাই। কেউ সরফরাজেক একটি ছবি পোস্ট করে সঙ্গে লিখেছেন, সমর্থকদের সঙ্গে জমিয়ে বসে ভারত-নিউজিল্যান্ড ম্য়াচ দেখতে প্রস্তুত সরফরাজ। পাকিস্তানের ২০১৭ আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি জয়ের ছবিতে ট্রফির জায়গায় একটি বড় চায়ের কাপ বসিয়ে বলা হয়েছে পাকিস্তান অন্তত চাযের কাপ জিতেছে।

আরও পড়ুন -ধোনিকে নকলের চেষ্টা, ফের হাসির খোরাক হলেন সরফরাজ - দেখুন ভিডিও

আরও পড়ুন হাই তোলা নিয়ে সরাসরি প্রশ্নের মুখে পাক অধিনায়ক, দিলেন মোক্ষম জবাব

আরও পড়ুন - ম্যাচের আগেই সরফরাজকে নিয়ে ফের হাসাহাসি! পাশে দাঁড়ালেন ভারতীয়রা

আবার আইসিসির ছবিতেও কারিকুরি করা হয়েছে সরফরাজদের ব্যঙ্গ করার উদ্দেশ্যেই। প্রখ্যাত ব্রিটিশ ব্য়ান্ড বিটলস-এর অ্যাবি রোড-এর কভারের অনুকরণে আইসিসি সেমিফাইনালের চার অধিনায়কের একটি ছবি পোস্ট করেছিল। সেই ছবির পিছনে একটি অটোর বি বসিয়ে সেই অটোর চালকের জায়গায় সরফরাজের হাই তোলার বিখ্যাত ছবিটি বসিয়ে দেওয়া হয়েছে।

সদ্য মুক্তি পেয়েছে স্পাইডারম্যানের নয়া চলচ্চিত্র। সেখানে স্পাইডারম্যানের সঙ্গে আয়রনম্য়ানের সম্পর্কের এক দারুণ রসায়ন দেখানো হয়েছে। আয়রনম্য়ান, তাঁর যাবতীয় আবিষ্কার স্পাইডারম্যানকেই দিয়ে য়েতে চেয়েছেন। ছবির একটি পোস্টারে স্পাইডারম্যানের মুখের জায়গায় সরফরাজের মুখ ও একই ভাবে আয়রনম্যানের মুখে ইমরান খানের ছবি লাগিয়ে একটি মজার পোস্টার বানিয়ে লেখা হয়েছে পাকিস্তানের হোমকামিং।