ম্য়াঞ্চেস্টারে বিশ্বকাপ ২০১৯-এর প্রথম সেমিফাইনাল চলছে। বিশ্বকাপে পাঁচ-পাঁচটা শতরান করে ফেলা রোহিত শর্মার সামনে বেশ কিছু রেকর্ড ভাঙার সুযোগ রয়েছে। প্রচারের আলো সব তাঁর আর বিরাটের উপরই। বিশ্বকাপে খারাপ ফর্মে থাকা ধোনি কিছুটা পিছনের সারিতে চলে গিয়েছেন। তাই কিছুটা জনমানসের অগোচরেই বিশ্বকাপ ২০১৯-এর সেমিফাইনালে আরও এক ওডিআই মাইফলকে পৌঁছে গেলেন মহেন্দ্র সিং ধোনি।

নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে ম্যাচটি প্রাক্তন ভারত অধিনায়কের কেরিয়ারের ৩৫০তম ওডিআই ম্যাচ। ভারতীয় ক্রিকেটারদের মধ্যে এতগুলি ম্য়াচ খেলার কৃতিত্ব রয়েছে শুধু মাত্র আর একজন ক্রিকেটারেরই - সচিন তেন্ডুলকর। সচিন মোট ৪৬৩টি ওডিআই খেলে অবসর নিয়েছিলেন।

আরও পড়ুন - সত্যি এত বড়! এবার ধোনি নয়, রেকর্ড করল তাঁর প্রতিকৃতি - দেখুন সেই ছবি

আরও পড়ুন - বিশ্বকাপে ধোনির ব্যাটে তিনটি লোগো! নিজেও কি অবসরের ইঙ্গিতই দিচ্ছেন

আরও পড়ুন - আবারও সচিন পড়তে চলেছেল রোহিত-গ্রাসে! রেকর্ড শর্মার চাই ২৭ রান

ধোনির এটি ৩৫০তম ওডিআই ম্য়াচ হলেও ভারতের জার্সিতে ৩৫০টি ম্যাচ খেলতে তাঁর এখনও ৩টি ম্য়াচ লাগবে। কারণ এই ৩৫০ ম্য়াচের মধ্যে তিনি ৩টি ম্যাচে খেলেছেন এশিয়া একাদশের হয়ে। মঙ্গলবার সেমিফাইনালে জিতলে ফাইনালে তিনি আরও একটি ম্যাচ খেলার সুযোগ পাবেন। জোর জল্পনা রয়েছে, এই বিশ্বকাপ খেলেই তিনি অবসর নিতে পারেন। সেই ক্ষেত্রে আকাসী নীল দার্সিতে ৩৫০ ম্য়াচ খেলা হবে না তাঁর।

এই ৩৫০টি ম্যাচের মধ্যে ২০০টি ম্যাচ তিনি খেলেছেন দলের অধিনায়ক হিসেবে। যে রেকর্ড ভারতের আর কোনও ক্রিকেটারের নেই। একই সঙ্গে এই ৩৫০টি ম্যাচেই ধোনি খেলেছেন উইকেটরক্ষক হিসেবে। তিনি বিশ্বে তিনিই প্রথম উইকেটরক্ষক হিসেবে এই মাইফলকে পৌঁছলেন। কুমার সাঙ্গাকারা ৩৬০টি ম্যাচ খেললেও, তার মধ্যে হেবেশ কয়েকটি ম্যাচেই তিনি কিপার হিসেবে খেলেননি।