আইসিসি ভেবেছিল বেশ চমক হবে। কিন্তু কার্যক্ষেত্রে তাদের সেই উদ্যোগ নিয়ে রঙ্গ-রসিকতায় মেতে উঠলেন নেটিজেনরা। এদিন ম্য়াচ শুরুর আগে দেখা য়ায় কিছু ব্যাক্তি প্য়ারাসুটে করে লর্ডস ক্রিকেট স্টেডিয়ামের দিকে আসছেন। তাদের পায়ে সাগানো যন্ত্র থেকে লাল ধোয়া বের হচ্ছিল। তাঁরা লর্ডসের মাঠেই নেমে পড়েন। তারপর এগিয়ে এসে আম্পায়ারদের হাতে ম্য়াচের বল তুলে দেন।  

সোশ্যাল মিডিয়ায় কিন্তু আইসিসি-র এই উদ্যোগ নিয়ে হাসাহাসি শুরু হয়েছে। অনেকেই বলছেন জনপ্রিয় অ্যাকশন গেম 'পাবজি'-র প্রভাব পড়ল ক্রিকেট বিশ্বকাপের ফাইনালে।

ম্যাচেও কিন্তু অ্যাকশনের অভাব নেই। প্রথমে নিউজিল্যান্ড ব্যাট করতে নেমে বিপদে পড়ে। ইংকেজ পেস বোলাররা প্রত্যেকে দুর্দান্ত বল করেছেন। একেবারে নিখুঁত জায়গায় বল রেখে গিয়েছেন। ২৩তম ওভারে কিউই অধিনায়ক আউট হওয়ার পর ছোটখাট ধস নামে নিউজিল্যান্ড ব্যাটিং-এ।  ডেথ ওভারেও সেভাবে রান আসেনি। ২৪১ রানের বেশি করতে পারেনি।

তবে ইংল্যান্ডকেও কিউই বোলাররা ছেড়ে কথা বলছে না। এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত ৩৭ ওবারে ইংল্য়ান্ড ৪ উইকেটে ১৫০ রান তুলেছে।