বিশ্বকাপের ১৫তম ম্যাচে চনমনে ওয়েস্টইন্ডিজ মুখোমুখি হচ্ছে দক্ষিণ আফ্রিকার। খাতায় কলমে দক্ষিণ আফ্রিকা একদিনের ক্রিকেটে ৩ নম্বর দল। কিন্তু চলতি বিশ্বকাপটা দক্ষিণ আফ্রিকা দলের কাছে দুঃস্বপ্নের মতো কাটছে। একদিকে পর পর পরাজয়ের গ্লানি,সেই সঙ্গে চোট আঘাতের দীর্ঘ তালিকা ঘুরে দাঁড়ানোর অবস্থাও রাখেনি।

প্রথম তিন ম্যাচে যথাক্রমে ইংল্যান্ড, বাংলাদেশ ও ভারতের কাছে পরাজিত হয়েছে। এদিন কিন্তু তাদের কাছে বাঁচা-মরার ম্যাচ। হারলে আর কোনও আশা থাকবে না সেমিফাইনাল খেলার।

অন্যদিকে ক্যারিবিয়ান দল পাকিস্তানকে হারিয়ে দারুণভাবে বিশ্বকাপ অভিযান শুরু করেছিল। অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে অধিকাংশ সময় জেতার মতো অবস্থায় থেকেও এলোমেলো শট খেলে শেষের দিকে পথ হারিয়েছিল তারা।

বিশ্বকাপে জেসন হোল্ডারের নেতৃত্বে ক্যারিবিয়ান পেস অ্যাটাক অনেককেই নস্টালজিক করে দিয়েছে। অনেকেরই তাদের দুর্দান্ত শর্ট বোলিং-এর নমুনা দেখে মনে পড়ে যাচ্ছে জোয়েল গার্নার, মাইকেল হোল্ডিং, ম্যালকম মার্শাল, অ্যান্ডি রবার্টসদের স্বর্ণযুগের পেস আক্রমণের কথা। এখনও পর্যন্ত বিশ্বকাপের প্রথম দুই ম্যাচে তাদের ধারাবাহিক বাউন্সার দেওয়ার কৌশল কার্যকরী হয়েছে।

সাউদাম্পটনের রোজ বোলের উইকেট সাধারণভাবে পাটা ব্যাটিং পিচ হয়। কিন্তু সোমবারের আবহাওয়ার যা পূর্বাভাস, তাতে চোখ চক-চক করে উঠতে পারে কটরেল, থমাস, রাসেলদের। সাউদাম্পটনের আকাশ এদিন ৭৫ শতাংশই মেঘে ঢাকা থাকার সম্ভাবনা। সেই সঙ্গে বেশ ঠান্ডাও থাকবে বলে মনে করা হচ্ছে। দক্ষিণ আফ্রিকার জোরে বোলিং বিভাগও যথেষ্ট শক্তিশালী। রাবাডার সঙ্গে ক্রিস মরিস কিন্তু ভারতের বিরুদ্ধে এই সাউদাম্পটনেই খুব ভালো বল করেছিলেন।

তবে সন্ধের দিকে বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। তাতে আউটফিল্ড মন্থর হয়ে যেতে পারে। ফলে ব্যাটসম্যানরা রান পাওযার ক্ষেত্রে  সমস্যায় পড়বেন। তাই মেঘলা হলেও টসে জিতলে জয়ী অধিনায়ক ব্যাটিং-ই নেবেন বলে আশা করা যায়।

দক্ষিণ আফ্রিকা দলের খবর - এনগিদি এখনও পুরো সুস্থ নন। ম্যাচের আগে যদি দেখা যায় তিনি আনফিট, তাহলে সেইক্ষেত্রে দেশ থেকে ডেল স্টেইনের বদলি হিসেবে উড়ে আসা বেউরান হেনড্রিক্স খেলবেন প্রথম একাদশে।

ওয়েস্টইন্ডিজ দলের খবর- আন্দ্রে রাসেলের হাঁটুতে চোট রয়েছে। তবে তাঁকে বাদ দিয়ে এই ম্যাচে ওয়েস্টইন্ডিজ নামবে বলে মনে হয় না।

দুই দলের সম্ভাব্য প্রথম একাদশ -

দক্ষিণ আফ্রিকা: কুইন্টন ডি কক (ওয়াটসন), হাশিম আমলা, ফাফ ডু প্লেসিস (অধিনায়ক), ভ্যান ডার ডুসেঁ, ডেভিড মিলার, আন্ডিল ফেহলুকাওইও, ক্রিস মরিস, বেউরান হেনড্রিক্স, কাগিসো রাবাডা ও ইমরান তাহির।

ওয়েস্ট ইন্ডিজ: ক্রিস গেইল, শাই হোপ (ডব্লিউ কে), ড্যারেন ব্রাভো, নিকোলাস পুরান, শিমরন হেটমায়ার, আন্দ্রে রাসেল, জেসন হোল্ডার (অধিনায়ক), কার্লোস ব্রেথওয়েট, অ্যাশলে নার্স, ওশেন থমাস ও শেলডন কটরেল।