এমন অনেক ক্রীড়াবিদ আছেন যাঁরা ক্রিকেটের বাইরে একধিক বিষয়ে আগ্রহী। তাদের মধ্যেই একজন প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক অনিল কুম্বলে। ক্রিকেট বলের পাশাপাশি তিনি সমান স্বাচ্ছন্দ বোধ করেন হাতে ক্যামেরা তুলে নিতে। কুম্বলের ক্রিকেট জীবন হোক বা জাতীয় দলের কোচের আসন। ড্রেসিংরুমে কুম্বলেকে বারবার দেখা যেত ক্যামেরা হাতে ভারতীয় দলের একাধিক স্মরণীয় মুহূর্তের ছবি তুলে রাখতে। এমনকি দলের সঙ্গে বিদেশে খেলতে গিয়েও একাধিক জায়গায় ক্যামেরা হাতে বেড়িয়ে পরতেন জাম্বো। ক্রিকেট থেকে অবসর নেওয়ার পর কুম্বলের সেই ছবি তোলার শখ বজায় আছে। এমনকি এখন নানান জঙ্গলে গিয়ে পশু পাখীদের ছবি তোলেন প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক। এমনই এক অভিযানে বেড়িয়ে এবার এক দুর্লভ মুহূর্তের সাক্ষী থাকলেন জাম্বো। নিজেই সেই ছবি পোস্ট করেছেন অনিল। 

 

 

আরও পড়ুন - ব্যর্থতা তাঁকেও প্রভাবিত করে, কেন এই কথা বলছেন ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি

ক্যামেরা হাতে মহাষ্ট্রের তাদোবা-আন্ধেরি টাইগার রিজার্ভে গিয়েছিলেন জাম্বো। তেমন সমই তাঁর চোখ পরে বাঘিনী মায়ার দিকে। একই সঙ্গে এক বিরল দৃশ্যেও সাক্ষী থাকার সুযোগ পান তিনি। টুইট করে কুম্বলে লিখেছেন, ‘জীবনের এক স্মরণীয় মুহূর্ত। তাদোবার এক বাঘিনী মায়া, অন্য এক বাঘিনীর থেকে কি ভাবে তার নিজের সীমান্ত রক্ষা করছে।’ দুই বাঘের সেই ছবি পরপর পোস্ট করেছেন অনিল। 

 

 

আরও পড়ুন - জোফরা আর্চারকে বর্ণ বৈষম্য মূলক কটুক্তি, ঘটনার পেছনে কী ইংরেজ সমর্থক

অনিল কুম্বলের এই টুইট দেখে নেটিজেনরা খুশি। একদিকে যেমন প্রাক্তন জাতীয় ক্রিকেটার তাঁদের এক বিরল দৃশ্য দেখালেন তার প্রশংসা যেমন আছে, তেমনই জাম্বোর ছবি তোলার হাতকেও কুর্নিশ করছে নেট দুনিয়া। প্রাক্তন ভারত অধিনায়েক সেই টুইট যেমন ১০ হাজারের ওপর লাইক পেয়েছে, তেমনই ৬০০ জন সেই পোস্টকে রিটুইট করেছেন। 

আরও পড়ুন - আইলিগের প্রথম ম্যাচ খেলতে আইজল পৌঁছাল মোহনবাগান, শনিবার শুরু লিগ যাত্রা