করোনা ভাইরাস মহামারীর জেরে বিশ্ব জুড়ে চলছে লকডাউন। এই সময় পরিবারের সঙ্গেই সম কাটাচ্ছেন  ক্রীড়া ব্যক্তিত্বরা। একইসঙ্গে সোশ্যাল মিডিয়াতেও সক্রিয়তা বেড়েছে সকলের। সোশ্যাল মিডিয়াতে কখনও সামাজিক সচেতনতার বার্তা দিচ্ছেন কেউ, কেউ আবার ব্যস্ত রয়েছেন সাক্ষাৎকারে, অনেকে লাইভ চ্যাটে আড্ডা দেওয়ার পাশাপাশি করছেন স্মৃতিচারণও। এই সব কিছু ছাড়াও অনেকেই টিকটকে মজাদার ভিডিও বানানোকে এই লকডাউনের সময় কার্যত নেশায় পরিণত করে ফেলছেন। তাদের মধ্যে অন্যতম হলেন অস্ট্রেলিয়ার তারকা ওপেনার ডেভিড ওয়ার্নার।

আরও পড়ুনঃভারতীয় দলকে সুন্দর থেকে কঠিন দলে পরিণত করেছিল সৌরভ,মন্তব্য নাসির হোসেনের

মেয়েদের আবদারে ও সময় কাটানোর জন্যই প্রথমে টিকটক ভিডিও বানানো শুরু করেন ডেভিড ওয়ার্নার। একাকীত্ব কাটানো ওয়ার্নারের টিকটক ভিডিও বানানোর অন্যতম কারণ। তারপর একের পর এক টিকটক ভিডিও বানাতে বানাতে শখে পরিণত করে ফেলেছেন অজি ওপেনার। ওয়ার্নারের টিকটক ভিডিওর জনপ্রিয়তাও বাড়ে ঝড়ের থেকে দ্রুত গতিতে। বাড়তে তাকে ফ্যান ও ফলোয়ার্সদের সংখ্যা। খবু কম সময় ধরে টিকটক ভিডিও বানালেও, বর্তমানে একজন টিটক সুপার স্টার হয়ে উঠেছেন ওয়ার্নার। শুধু নিজেই ভিডিও না বানিয়ে, ভিডিওগুলিকে আরও মজাদার করতে নিজের পরিবারের সদস্যদেরও ভিডিওতেও সামিল করেন অজি তারকা। 

আরও পড়ুনঃবল পালিশে করা যাবে না থুতুর ব্যবহার, জানিয়ে দিল কুম্বলে কমিটি

আরও পড়ুনঃকোহলিকে দলে সুযোগ দিতে ঘুষ চেয়েছিলেন এক আধিকারিক, চাঞ্চল্যকর অভিযোগ বিরাটের

টিকটকে ভিডিওতে নানা রূপেও দেখা দিয়েছেন ওয়ার্নার। বলিউড বা ইন্ডিয়ান সিনেমার প্রতি প্রেমও টিকটকের মাধ্যমে সকলের সামনে তুলে ধরেছেন অজি ওপেনার। কখনও শীলা কি জওয়ানি, কখনও বাট্টা বোমা, কখনও আবার প্রভু দেবার জনপ্রিয় গান মুকাবিলার গানে ওয়ার্নার ও তার পরিবারের নাচ ভাইরাল হয়ছে নেট দুনিয়ায়। বাহুবলীর চরিত্রেও সকলের সামনে তুলে ধরেছেন ওয়ার্নার। বিশ্ব জুড়ে ক্রিকেটাররাও ফ্যান হয়ে উঠেছে ডেভিড ওয়ার্নারের। ক্রিস লিন, অ্যারন ফিঞ্চ, প্যাট কামিন্স, রশিদ খান, শ্রীবৎস গোস্বামী সহ আরও অনেকে। ইতিমধ্যেই টিকটকে ৪০টির মত ভিডিও বানিয়ে ফেলেছেন ওয়ার্নার। ফোলয়ারের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ২৭ লক্ষ। এত কম সময়ে এত ফোলায়ার খুব কম টিকটক সুপারস্টারই করতে পেরেছেন। একার পর এক সুপার ডুপার হিট ভিডিও করে টিকটকের দুনিয়ায় নয়া সুপার স্টার হয়ে উঠেছেন অজি তারকা।