সময়টা যেন কিছুতেই ভাল যাচ্ছে না বাংলাদেশ ক্রিকেটের। সম্প্রতি করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ থেকে মুক্তি পেয়েছেন বাংলাদেশ দলের প্রাক্তন অধিনায়ক তথা বর্তমান সাংসদ মাশরফি মোর্তাজা। এবার করোনা ভাইরাস থাবা বসালো দেশের আরও এক প্রাক্তন অধিনায়ক সাকিব আল হাসানের পরিবারে। মারণ ভাইরাসে আক্রান্ত হলেন বাংলাদেশি অলরাউন্জারেরে বাবা খন্দকার মাশরুর রেজা। রবিবার তার কোরানা রিপোর্ট পজেটিভ ধরা পড়ে। বাবার করোনা আক্রান্তের খবর প্রকাশ্যে আসতেই উদ্বিগ্ন গোটা পরিবার।

আরও পড়ুনঃকরোনা কোপ এবার ব্যালন ডিঅর-এ, ১৯৫৬-র পর প্রথম দেওয়া হবে না পুরস্কার

গত সপ্তাহে শেষ কয়েকদিন ধরেই জ্বর ও সর্দিতে ভুগছিলেন সাকিব আল হাসানের বাবা৷ তাঁর শরীরের লালারস পরীক্ষা করা হয়৷ রবিবার সেই রিপোর্ট এসে পৌঁছয়৷ রিপোর্টে কোভিড-১৯ পজিটিভ পাওয়া গিয়েছে৷  সাকিবের এক আত্মীয় জানিয়েছেন, শাকিবের বাবা একটি ব্যাংকে চাকরি করেন৷ তাঁর আগে ওই ব্যাংকের ৬-৭ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে৷ আমরা রিপোর্ট আসার পর জানতে পারলাম, তিনিও কোভিড-১৯ ভাইরাসে আক্রান্ত৷’ তিনি আরও বলেন, ‘শাকিবের মা‘কে আইসোলেশনে রাখা হয়েছে৷ ওনার টেস্ট হয়েছে৷' আপাতত মাগুরায় নিজের বাড়িতেই আইসোলেশনে রয়েছেন শাকিবের বাবা। তাঁর শারীরিক অবস্থা তুলনায় অনেক ভালো রয়েছে বলে খবর।

আরও পড়ুনঃইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে সিরিজ দিয়েই মাঠে ফিরছে অস্ট্রেলিয়া, জেনে নিন সিরিজের ক্রীড়াসূচি

আরও পড়ুনঃচিনে নিন বিশ্বের সব থেকে সেক্সিয়েস্ট ফুটবল রেফারিদের, যাদের রূপ ঝড় তোলে হৃদয়ে

দুর্নীতির অভিযোগে এক বছরের জন্য জাতীয় দল থেকে নির্বাসিত প্রাক্তন বাংলাদেশি অধিনায়ক৷ তার পর থেকেই তিনি তাঁর পরিবারের সঙ্গে মার্কিন মুলুকে রয়েছেন৷ থেকেই দেশের সাধারণ মানুষের জন্য তাঁর ফাউন্ডেশনের হয়ে কাজ করে চলেছেন সাকিব৷ এছাড়া করোনা আক্রান্তদের সাহায্য ও চিকিৎসার জন্য নিজের ২০১৯ সালের বিশ্বকাপের ব্যাটটিও নিলামে তোলেন বাংলাদেশি তারকা। যেই ব্যাট দিয়ে দুটি সেঞ্চুরি করেছিলেন বিশ্বকাপে। সেই ব্যাট নিলাম থেকে পাওয়া অর্থ করোনা তহবিলে দান করেছেন সাকিব। তবে বাবার করোনা আক্রান্ত হওয়ার খবরে কিছুটা আতঙ্কিত হয়ে পড়েছেন সাকিব আল হাসান ও তার পরিবার।