ইডেন টেস্টে প্রথম এক ঘণ্টার মধ্যেই ব্যাকফুটে বাংলাদেশ। লাগাতার উইডকেট হারিয়ে এখন দিশেহারা তাদের ব্যাটিং লাইন আপ। এখন পর্যন্ত যে কয়টি উইকেট পড়েছে তাতে উমেশ যাদব তিনটি উইকেট সংগ্রহ করেছেন। ইশান্ত দুইটি ও সামির ঝুলিতে গিয়েছে একটি উইকেট। 

 

আরও পড়ুন- পিঙ্ক বলে ভারতীয় পেসারদের দাপট, সুপার ব্রেকের আগে ৬ উইকেট হারালো টাইগার্সরা

টসে জিতে দিন-রাতের পিঙ্ক বল টেস্টে প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয় বাংলাদেশ। ভারতের হয়ে বোলিং ওপেন করেন ইশান্ত শর্মা। প্রথম বলটি সোজা গিয়ে লাগে বাংলাদেশের বাঁ-হাতি ওপেনার ইমরুল কায়েসের শরীরে। তবে, প্রথম দিনের প্রথম বলে ততটা ঝাঁঝ দেননি ইশান্ত। বোঝাই যাচ্ছিল ইডেনের বিচিত্র হাওয়ার গতি এবং পিঙ্ক বলের ভাবটাকে বোঝার চেষ্টা করছেন ভারতীয় পেসার। 

আরও পড়ুন- ইডেনে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে জমাটি আড্ডায় সচিন

ব্যাস এইটুকু, এরপর থেকে আসতে গতির মাত্রা বাড়াতে থাকেন ইশান্ত। যার জেরে ছয় ওভার তিন বলের মাথায় দিন-রাতের এই ঐতিহাসিক টেস্টের প্রথম উইকেটটি তাঁর ঝুলিতেই আসে। এলবিডবলিউ হন বাংলাদেশের ওপেনার ইমরুল হাসান। অন্যপ্রান্তে উমেশ যাদব এসেই গতি-র মাত্রায় বাংলাদেশ ব্যাটসম্যানদের বিভ্রান্ত করতে থাকেন। যার জন্য ১০ ওভার ১ বলে বাংলাদেশের দ্বিতীয় উইকেটটি পড়ে যায়। উমেশের বলে রোহিত শর্মার তালুবন্দি হয়ে প্যাভিলিয়নের রাস্তা ধরেন অধিনায়ক মমিনুল হক। ওই একই ওভারে উমেশ তুলে নেন বাংলাদেশের মহম্মদ মিঠুনের উইকেটটিও। আশা ছিল মুশফিকুর রহিম বাংলাদেশকে এই বিপর্যয় থেকে টেনে তুলবে। কিন্তু তা আর হয়নি। মহম্মদ সামি বল করতে এসে মুশফিকুর রহিমের উইকেটটি তুলে নেন। সামির বলে বোল্ড হন তিনি। খেলার বয়স তখন ১১ ওভার ৫ বল হয়েছিল। দুই ওভার কাটতে না কাটতেই ফের আঘাত হানেন উমেশ। যার জেরে শাদমান ইসলামের উইকেটটি হারায় বাংলাদেশ। উমেশ যাদবের বলে উইকেটের পিছনে ঋদ্ধিমান সাহার হাতে ক্যাচ দিয়ে প্যাভিলিয়নে ফেরেন শাদমান ইসলাম। বাংলাদেশের ষষ্ঠ উইকেটটি সংগ্রহ করেন ইশান্ত শর্মা। তিনি মহম্মদ মেহদুল্লা-র উইকেটটি ঝুলিতে পোরেন। ঋদ্ধির হাতে ক্যাচ দিয়ে ফিরে যান মেহদুল্লা।  শেষ পাওয়া খবরে বাংলাদেশ ৬ উইকেট হারিয়ে কোনওমতে ৭০ রানের গণ্ডি পার করেছে।