Asianet News BanglaAsianet News Bangla

নতুন ভাবে আত্মপ্রকাশ করতে তৈরি মোতেরা, হার মানবে মেলবোর্নও

  • নতুন ভাবে আত্মপ্রকাশ করতে তৈরি মোতেরা
  • আগামী বছর মার্চেই হতে পারে উদ্বোধন
  • প্রথম ম্যাচ এশিয়া ও বিশ্ব একাদশের মধ্যে
  • তেমনই খবর বোর্ড সুত্রে
BCCI all set to open new look Motera in march 2020
Author
Kolkata, First Published Dec 4, 2019, 11:53 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

নতুন ভাবে তৈরি মোতেরা এবার বিশ্ব ক্রিকেটের মঞ্চে আত্ম প্রকাশ করতে তৈরি। এতদিন অস্ট্রেলিয়ার মেলবোর্ন ক্রিকেট স্টেডিয়াম বিশ্বের সব থেকে বড় ক্রিকেট স্টেডিয়ামের স্বকৃতী পেত। কিন্তু এবার সেই তমকা ছিনিয়ে নিতে চলেছে ভারত। মোতারা আসন সংখ্যার বিচারে পৃথিবী সব থেকে বড় স্টেডিমায় হিসেবে আত্মপ্রকাশের জন্য তৈরি। একদিন মোতেরায় ৫৩ হাজার দর্শক এক সঙ্গে খেলা দেখতে পারেতন। এবার সেই সংখ্যাটা দাঁড়াবে ১ লক্ষ ১০হাজার মানুষ। বোর্ড সুত্রে খবর আগামী বছর মার্চেই হতে পারে সর্দার প্যাটেল স্টেডিয়ামের উদ্বোধন। ২০১৪ সালে মোতেরার শেষ আন্তর্জাতিক ম্যাচ হয়েছে। ২০১৫ সাল থেকে শুরু হচ্ছে নতুন ভাবে স্টেডিয়াম তৈরির কাজ। ২০২০ সালের জানুয়ারি মাসে সব কাজ শেষ হয়ে যাবে।

আরও পড়ুন - বুমরা তাঁর কাছে শিশু, এমনই উক্তি প্রাক্তন পাক ক্রিকেটারের

নতুন এই স্টেডিয়ামের উদ্বোধনটা হতে চলেছে জমজমাট ভাবেই। বিশ্ব ক্রিকেটের তাবর তাবর তারকারা উপস্থিত থাকতে চলেছেন উদ্বোধনী অুষ্ঠানে। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড বঙ্গবন্ধু মুজিবুর রহমানের জন্ম শতবর্ষের নানান অনুষ্ঠানের মধ্যেই আয়োজন করতে চেলেছে এশিয়া একাদশ ও বিশ্ব একাদশের ক্রিকেট ম্যাচ। সেই অনুষ্ঠানের সরিক হতে চলেছে ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ডও। আর তাই বাংলাদেশের পাশাপাশি মোতেরাতেও ম্যাচ আয়োজনের ভাবনা নিয়েছে বোর্ড। বাংলাদেশ দুটি টি-২০ ম্যাচের আয়োজন করবে, এটা আগে থেকেই ঠিক ছিল। এবার সেই সংখ্যাটাকে তিনটি ম্যাচের করা হচ্ছে। প্রথম দুটি ম্যাচ ঢাকায় হবার পর তৃতীয় ম্যাচটি হবে মোতেরায়। আর সেটাই হবে নতুন স্টেডিয়ামের প্রথম ম্যাচ।

আরও পড়ুন - এবার লড়াই ক্যারিবিয়ানদের বিরুদ্ধে, প্রস্তুতি শুরু টিম ইন্ডিয়ার 

নতুন ভাবে সেজে ওঠা মোতারায় থাকতে চলেছে তিন ধরের উইকেট। গুজরাত ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশনের পরিকল্পনা অনুযায়ী মোট ১১টি উইকেট থাকবে বিশ্বের সব থেকে বড় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে। কিছু উইকেট তৈরি হবে লাল মাটির। কিছু উইকেট তৈরি করা হবে শক্ত কালো মাটি দিয়ে। আর বাকি উইকেট তৈরি হবে দুই ধরনের মাটি মিশিয়ে। যে দল যেমন ধরনের উিকেটে প্রস্তুতি করতে চাইবে তারা যাতে সেই ধরনের ব্যবস্থা পায় সেটা মাথায় রেখেই তিন ধরনের উইকেট তৈরির সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। একই সঙ্গে থাকছে সাব সারফেস ড্রেনেজ সিস্টেম। যাতে বৃষ্টি থামার ৩০ মিনিটের মধ্যে মাঠ আবার খেলার উপযুক্ত হয়ে উঠবে। সব মিলিয়ে তৈরি মোতেরা । অপেক্ষা এখন শুরু প্রথম বল হওয়ার। 

আরও পড়ুন - নিলাম শুরুর আগেই লড়াই, মুখোমুখি কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব ও দিল্লি ক্যাপিটালস

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios