বাংলাদেশের বিরুদ্ধে অধিনায়ক বিরাট কোহলি ছাড়াই টি-২০ সিরিজ জিতেছিল ভারতীয় দল।  তারপর টেস্টের মেজাজে ছিল গোটা দেশ জুড়ে। কারণ ইডেনে প্রথমবার পিঙ্ক বল টেস্ট দেখতে পল ভারতীয় দল। গোলাপি চ্যালেঞ্জ সফল ভাবে সামনে এবার আবার সাদা বলের ক্রিকেটে ফিরতে চলেছে টিম ইন্ডিয়া। এবার দলের হয়ে মাঠে নামছেন বিরাট কোহলিও। বুধবার থেকে হায়দরাবাদের রাজীব গান্ধী স্টেডিয়ামে প্রস্তুতি শুরু হল ভারতীয় দলের। প্রথম দিন নতুন অনুশীলন জার্সি ও নতুন ধরনের ফিটনেস ট্রেনিংয়ে জমজমাট টিম ইন্ডিয়ার প্র্যাকটিস। 

 

 

আরও পড়ুন - বিরাটের কাছে হার স্টিভ স্মিথের, টেস্টের শীর্ষস্থান দখল করলেন কোহলি

শুক্রবার প্রথম ম্যাচেই আবার একটি রেকর্ডের সামনে দাঁড়িয়ে টিম ইন্ডিয়ার সহ-অধিনায়ক রোহিত শর্মা। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে এখনও পর্যন্ত ৩৯৯টি ছক্কা হাঁকিয়েছেন তিনি। হায়দরাবাদে আর একটা ছয় রোহিতকে ৪০০ ছয়ের ক্লাবে পৌছে দেবে। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে আর মাত্র দুই ক্রিকেটারের এই কৃতিত্ব আছে। ওয়েস্ট ইন্ডিজের ক্রিস গেইল ও পাকিস্তান শাহিদ আফ্রিদি। সব ধরনের ক্রিকেট মিলিয়ে ৫৩৪টি ছয় মেরেছেন গেইল। আফ্রিদি মেরেছেন ৪৭৬টি ছয়। দুরন্ত ছন্দে রয়েছেন ভারতীয় দলের ওপেনার। টেস্ট ক্রিকেটে ওপেন করতে নেমে এক সিরিজে ১৯টি ছয় মেরে রেকর্ড গড়েছিলেন রোহিত শর্মা। 

আরও পড়ুন - নিলাম শুরুর আগেই লড়াই, মুখোমুখি কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব ও দিল্লি ক্যাপিটালস

ভারতীয় টি-২০ দলে এবার কিছু বদল করতে হবে। কারণ চোটের জন্য ছিটকে গেছেন শিখর ধাওয়ান। রোহিতের সঙ্গে মাঠে নামার কথা কেএল রাহুলের। কিন্তু একটা মহলের দাবি সঞ্জু স্যামসনকে ওপেনার হিসেবে ব্যবহার করা হোক। কিন্তু টিম ম্যানেজমেন্ট কী আদৌ সেটা চাইছে? কারণ বাংলাদেশের বিরুদ্ধে একটাও ম্যাচ না খেলিয়ে সঞ্জুকে দলের বাইরে পাঠিয়ে দিয়েছিলেন নির্বাচকরা। তুমুল সমালোচনার মুখে পরতে হয়েছিল তাদের। কিন্তু ধাওয়ন চোট পেয়ে ছিটকে যাওয়ার পর আবার দলে ফিরিয়ে নেওয়া হয় কেরালার ব্যাটসম্যানকে। এখন দেখার সঞ্জুকে প্রথম দলে সুযোগ করে দেওয়া হয় নাকি আরও একটা সিরিজ ঋষভ পন্থকে সুযোগ দিতে চাইছেন কোহলিরা। তবে এবারও যদি ঋষভ ব্যর্থ হন তাহলে আগামী বছর অস্ট্রেলিয়ায় টি-২০ বিশ্বকাপের দলে তাঁর জায়গা নিয়ে একটা প্রশ্ন তৈরি হবে। 

আরও পড়ুন - এবার পরীক্ষার মুখে আজহারউদ্দিন, হায়দরাবাদে প্রস্তুতি শুরু ক্যারিবিয়ানদের