ক্রিকেট বিশ্বে অনেকেই তাকে জ্যোতিষী বলে ডাকেন। তিনি ইংল্যান্ডের তারকা পেসার জোফ্রা আর্চার। এর আগে একাধিক ভবিষ্যৎবাণী করেছেন জোফ্রা। যার সবগুলিই অক্ষরে অক্ষরে মিলেছে। তা সে করোনা অতিমারীর কারণে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ২১ দিনের কারফিউ হোক আর ২০১৯ বিশ্বকাপ ফাইনালের সুপার ওভার। সব কিছুরই ভবিষ্যদ্বাণী করেছিলেন জোফ্রা। তাই পোষাকি নামও হয়ে গিয়েছে 'জ্য়োতিষী জোফ্রা'। কিন্তু এবার তিনি যে কাণ্ড ঘটিয়েছেন তা দেখে হতবাক গোটা বিশ্ব। জো বাইডেন     যে আমেরিকার প্রেসিডেন্ট হবেন তা ৬ বছর আগেই ভবিষ্যদ্বাণী করেছিলেন জোফ্রা আর্চার। খোদ সচিন তেন্ডুলকরও যা দেখে অবাক। 

সম্প্রতি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের পদে ২৯০ ভোট পেয়ে জয়লাভ করেছেন জো বাইডেন। সোশ্যাল মিডিয়ায় রীতিমত ট্রেন্ডিংয়ে রয়েছে আমেরিকায় নয়া প্রেসিডেন্টের নাম। এই সবকিছুর মধ্যেই সামনে আসে ৬ বছর আগে করা জোফ্রা আর্চারের একটি ট্যুইট। যেখানে শুধু মাত্র 'জো' লিখেছিলেন ব্রিটিশ তারকা। নেটিজেনরা জো বাইডেনের নাম সার্চ করতে গিয়েই উদ্ধার হয় জোফ্রা আর্চারের ৬ বছর আগের পুরনো টুইট। মুহুর্তের মধ্যেই তা ভাইরাল হয়ে যায় সোশ্যাল দুনিয়ায়। মজার বিষয় হল জোফ্রা আর্চার কীভাবে ট্যুইট করেছিলেন তা কেবল তিনিই জানেন, কিন্তু নেটিজেনদের বদান্যতায় ও আর্চারের আগের ভবিষ্যৎদ্বাণীগুলির কারণে আরও একবার মহান জ্যোতীষি হয়ে ওঠেন ইংল্য়ান্টের তারকা পেসার।

 

 

বিষয়টি নিয়ে হইচই শুরু হতেই, জোফ্রার ট্যুইটটি রিট্যুইট করেন মাস্টার-ব্লাস্টার কিংবদন্তী ব্যাটসম্যান সচিন তেন্ডুলকর। রিট্যুইট করে সচিন তেন্ডুলকর লেখেন,'ওহ মাই গড'। আর্চারেরে ট্যুইট ভাইরাল হওয়ার পর থেকেই, সকলেই বলাবলি করছেন জোফ্রা আর্চার ৬ বছর আগে কীভাবে জানলেন যে একসময় মার্কিন প্রেসিডেন্ট হবেন জো বাইডেন। সব মিলিয়ে ২২ গজের বাইরে এখন নেট দুনিয়ায় রমরমিয়ে চলছে 'জ্যোতিষী জোফ্রার' কেরামতি।