কর্নাটক প্রিমিয়ার লিগের ফিক্সিংয়ে তল যে কতটা গভীরে সেটার ইঙ্গিত পাওয়া গিয়েছিল আগেই। কর্নাটকের সেন্ট্রাল ক্রাইম ব্রাঞ্চ তিন জন ক্রিকেটার সহ আট জনকে ইতিমধ্যেই গ্রফতার করেছে। আর এবার তদন্তকারীদের প্রশ্নের মুখে পরার জন্য ডাক পড়ল প্রাক্তন জাতীয় ক্রিকেটারের। টিম ইন্ডিয়ার জার্সিতে চারটি টেস্ট খেলা ক্রিকেটার অভিমন্যু মিঠুনের বিরুদ্ধে সমন জারি করেছে সিসিবি। কর্নটক প্রিমিয়ার লিগের ফিক্সিং বিতর্কে এই প্রথম কোনও জাতীয় ক্রিকেটারের ডাক পরল। এবারের লিগে শিবমগা লায়ন্স দলের অধিনায়ক ছিলেন মিঠুন। 

দেখুন ভিডিও - ধোনির জীবনের প্রিয়স্মৃতি, নিজেই জানালেন ক্যাপ্টেন কুল

কর্নাটকের জয়েন্ট কমিশনার অব পুলিস (ক্রাইম) সন্দীপ পাটিল এই খবর সত্যতা স্বীকার করে জানিয়েছেন,‘ হ্যাঁ আমরা মিঠুনকে ডেকে পাঠিয়েছি কিছু প্রশ্ন করার জন্য। আমাদের কাছে কিছু প্রশ্ন আছে, য়ার উত্তর পাওয়ার জন্য আমরা মিঠুনকে ডেকে পাঠিয়েছি।’ যেহেত মিঠুন জাতীয় দলের ক্রিকেট খেলেছেন তাই এই সমন জারির সময় বোর্ডকেও নিজেরে সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছে সিসিবি। অভিমন্যু বর্তমানে রয়েছেন সুরাটে। সেখানে কর্নাটক জাতীয় দলের হয়ে মুস্তাক আলি টি২০ ক্রিকেট খেলছেন তিনি। 

আরও পড়ুন - অনিল কুম্বলের ক্যামেরায় ধরা পড়ল ‘মায়া’, ছবি ভাইরাল নেট দুনিয়ায়

কর্নাটক প্রিমিয়ার লিগের এই ফিক্সিং কান্ডের তদন্তে নেমে একের পর এক বিষয় সামনে নিয়ে এসেছে কর্নাটকের সেন্ট্রাল ক্রাইম ব্রাঞ্চ। গত সপ্তাহে কর্নাটক ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন ও কর্নাটক প্রিমিয়ার লিগের কর্তাদের লম্বা একটি প্রশ্নের তালিকা পাঠিয়েছেন তদন্তকারীরা। সেই সব প্রশ্নের উত্তর এখনও আসেনি। পাশাপাশি এমনটাও জানা গেছে এমন অনেক ক্রিকেটার ছিলেন যারা বুকিদের সঙ্গে হাত মেলাতে চাননি। সোজা ভাবে ক্রিকেটারেদর বাগে আনতে না পেরে অনেক ক্রিকেটারকেই হানি ট্র্যাপের মধ্যে দিয়ে ফিক্সিং কান্ডে জড়িয়ে ফেলেছে বুকিরা। 

আরও পড়ুন - ব্যর্থতা তাঁকেও প্রভাবিত করে, কেন এই কথা বলছেন ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি