আগামী ২২ নভেম্বর থেকে কলকাতার মাটিতে শুরু হচ্ছে দেশের প্রথম দিন রাতের টেস্ট। ভারতীয় ক্রীড়া ক্ষেত্রে এটা একটা মাইল স্টোন স্থাপন করতে চলেছে কলকাতা। ক্রিকেটার পাশাপাশি কলকাতা বলা হয় ভারতীয় ফুটবলের মক্কা। প্রতিদিন হাজার হাজার ছেলে মেয়ে রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে কলকাতা ময়দানে আসে চোখে অনেক স্বপ্ন নিয়ে। কিন্তু এই ক্রীড়াবিদদের স্বপ্নের কে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে নোংরা খেলায় নেমেছে একদল ব্যবসায়ী। নামি ব্র্যান্ডের ক্রীড়া সরঞ্জামের নাম করে দিনের পর দিন চওড়া দামে নকল সরঞ্জাম বিক্রি করা হচ্ছে। 

আরও পড়ুন - আগামী দিনে বিশ্বে রাজ করতে পারেন এই ভারতীয় কন্যা,সমীক্ষায় এমনই রিপোর্ট

নকল ক্রীড়া সরঞ্জামের ব্যবসা নিয়ে অনেক দিন থেকেই অভিযোগ উঠে আসছে কলকাতায়। কিন্তু তাতে কোনও সমস্যা হয়নি একদল অসাধু ব্যবসায়ীর। দিনের পর দিন দিব্যি নকল ক্রীড়া সরঞ্জামের ব্যবসা করে যাচ্ছেন তাঁরা। তবে এবার এই বিষয়ে নড়েচড়ে বসল এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট। কলকাত থেকে পাওয়া একাধিক অভিযোগের ভিত্তিতে আমহার্স্ট স্ট্রিট থানায় দুটি আলাদা মামলা দাখিল করা হয়েছে। তদন্তকারী অফিসার জানিয়েছেন, উত্তর ও মধ্য কলকাতার কিছু ব্যবসায়ীর থেকে একাধিক অভিযোগ পাওয়ার পর এই বিষয়ে ব্যবস্থা নেওয়ার পথে ইডি। 

আরও পড়ুন - দিন রাতের টেস্ট খেলতে কেন বেছে নেওয়া হয়েছে গোলাপি বল, রহস্য ভেদ করল বৈজ্ঞানিকরা

তদন্তকারী অফিসাররা জানিয়েছেন, সব থেকে বেশি সমস্যা ক্রিকেট ব্যাটের ক্ষেত্রে। নামি ব্র্যান্ডের ব্যাটে বিক্রি করা হচ্ছে নকল করে। কাশ্মীরি উইলোর ব্যাটের ওপর ব্যবহার করা হচ্ছে ইংলিশ ইউলোর মোড়ক। বাইরে থেকে দেখে সেটা বোঝার উপায় নেই। দাম দিয়ে ব্যাট কিনছেন খেলোয়াড়রা। অথচ সেটা পাচ্ছেন নকল ব্যাট। তবে শুধু ব্যাটের ক্ষেত্রেই এই সমস্যা নেই, ফুটবল থেকে জার্সি সব ক্ষেত্রেই নকলের দাপট। আইএসএলের যে বল ব্যবহার করা হচ্ছে, সেটারও নকল পাওয়া যাচ্ছে কলকাতার বাজারে। এই গোটা ঘটনার তদন্তে ইডিকে সাহায্য করছেন অভিযোগকারী ব্যবসায়ীরা।  

আরও পড়ুন - অসম্ভব-কে সম্ভব করার ডাক সত্যরূপের, চাকরি ছেড়ে নয়া পথে বাঙালির ছেলে