ভারতে এই প্রথম হতে চলেছে দিন রাতের টেস্ট। গোলাপি বলের টেস্ট এর আগে অন্যান্য দেশগুলি খেললেও এই স্বাদ এখনও পর্যন্ত পাননি বিরাট কোহলি, অজিঙ্কা রাহানেরা। একই সঙ্গে গোলাপি বলে খেলেনি বাংলাদেশ দলও। তবে এই মুহূর্তে ভারতীয় ক্রিকেটে ও কলকাতায় এই ঐতিহাসিক টেস্ট ম্যাচ নিয়ে উন্মাদনায় রয়েছে ক্রিকেট প্রেমীরা। তবে লাল বল ও সাদা বল ছেড়ে কেন গোলাপি বলকেই বেছে নিয়েছে আইসিসি সহ গোটা বিশ্ব ক্রিকেট মহল সেটা অনেকের কাছেই স্পষ্ট নয়। ২০০০ সালে প্রথম ফার্স্ট ক্লাস ক্রিকেটে ও বেসরকারি ভাবে টেস্ট ম্যাচে আনা হয়েছিল গোলাপি বল। আর তারপর থেকেই চলছে এই বলে দিন রাতের টেস্ট ক্রিকেট।

 

 

আরও পড়ুন, গোলাপি বলের টেস্টে 'বিরাট' পছন্দের উইকেট গড়ছে ইডেন গার্ডেন্স

সাধারণত লাল বলেই খেলা হয় টেস্ট ক্রিকেট। একই সঙ্গে সাদা বলে খেলা হয় একদিনের ম্যাচ। তবে এর মাঝে প্রশ্ন থেকেই যায় যে সাদা বলে একদিনের দিন রাতের ম্যাচ খেলা হলেও, কেন হয় না টেস্ট ক্রিকেট। আর কেন লাল বলে খেলা যাবে না রাতের ক্রিকেট। সেটা নিয়েও প্রশ্ন হওয়াটা স্বাভাবিক বিষয়। বৈজ্ঞানিক দিক থেকে দেখতে গেলে সকালে সব থেকে ভালো দেখা যায় লাল রং। আর সেই বলেই দিনের বেলা টেস্ট খেলা হতো। একই সঙ্গে রাতের আলোয় সব থেকে বেশি দেখা যায় সাদা বল। তবে টেস্ট ম্যাচে সাদা জামা প্যান্ট থাকায় সাদা বলে খেলাটা সম্ভব নয়। আর সেই কারণে বেছে নেওয়া হয়েছে গোলাপি বলকে। বৈজ্ঞানিক ভাবে রাতের নৈশালোক ও দিনের আলো মিলিয়ে গোলাপি রঙকেই বেছে নিয়েছে বিশেষজ্ঞরা।

আরও পড়ুন, গোলাপী বলে অনুশীলন শুরু বিরাটের, ব্যাট থেকে বেড়িয়ে এল দুরন্ত সব শট

অপরদিকে, লাল বল ও গোলাপি বল তৈরি করা হয় লম্বা সময়ের খেলার জন্য। তবে সাদা বল খুব শীঘ্রই ফেকাসে হয়ে যায়। আর সেই বল দিয়ে টেস্ট ম্যাচের মতন লম্বা সময়ের ক্রিকেটে প্রভাব ফেলে। তাই প্রথম থেকেই গোলাপি বলের ক্রিকেট শুরু হয় বিভিন্ন দেশগুলিতে। গোলাপি বলে প্রথম আন্তর্জাতিক দিন রাতের টেস্ট খেলা হয় অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে। ২০১৫ সালে এই ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছিল অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ড। তারপর থেকে মোট ১১টি দিন রাতের টেস্ট হয় গোটা বিশ্বে। ভারত, বাংলাদেশ ছাড়া গোলাপি বলের টেস্ট খেলেছে অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ড, ওয়েস্ট ইন্ডিজ, পাকিস্তান, দক্ষিণ আফ্রিকা, জিম্বাবোয়ে, ইংল্যান্ড সহ শ্রীলঙ্কা। তবে এই প্রথম গোলাপি বলে খেলতে নামবে বিরাট বাহিনী। আর সেই সঙ্গে নতুন বলে টেস্ট ক্রিকেটে অভিষেক হবে ভারতীয় দলের।