অবশেষে করোনা ভাইরাসের মারণ প্রকোপ থেকে মুক্ত হলেন বাংলাদেশের প্রাক্তন অধিনায়ক মাশরফি মোর্তাজা। দীর্ঘ ২৪ দিন বিশ্ব মহামারীর বিরুদ্ধে লড়াই করার পর অবশেষে মারণ ভাইরাসকে হারালেন বাংলাদেশের প্রাক্তন অধিনায়ক। কোভিড ১৯ থেকে মুক্তি পাওয়ার কথা নিজেই জানিয়েছেন দু নম্বর নরাইলের সাংসদ। তৃতীয় দফার পরীক্ষায় মোর্তাজার করোনা রিপোর্ট নেগেটিভ আসে বলে জানা গিয়েছে। দেশের প্রাক্তন অধিনায়ক ও সাংসদ করোনা ভাইরাস থেকে মুক্ত হওয়ার খবরে কিছুটা স্বস্তির হাওয়ার বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড ও দেশের রাজনীতির অন্দরে।

আরও পড়ুনঃশুধু বিশ্বকাপই নয়, বাতিল হতে পারে ভারত-অস্ট্রেলিয়া টি২০ সিরিজও

গত ২০ জুন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছিলেন মাশরফি মোর্তাজা। সোশ্যাল মিডিয়ায় তিনি লিখেছিলেন,'আজ সন্ধেয় আমার পরীক্ষার ফল নেগেটিভ এসেছে। আমি সবার কাছে কৃতজ্ঞ যাঁরা আমার জন্য প্রার্থণা করেছেন, যাঁরা আমাদের জন্য চিন্তা করেছেন এই সময়। কিন্তু আমার স্ত্রীর পরীক্ষার ফল এখনও পজিটিভ ধরা পড়ার দু'সপ্তাহ পর। ও ভালো আছে। ওর জন্য প্রার্থণা করবেন।' এরপর ১৫ দিন পর দ্বিতীয় দফার পরীক্ষাতে করোনা রিপোর্ট পজেটিভ আসায় উদ্বেগ বাড়ে সকলের মধ্যে। তবে এবার পুরোপুরি করোনা মুক্ত হলেন মোর্তাজা। 

আরও পড়ুনঃবিকিনিতে অনুষ্কা শর্মার হট ফটো শুট দেখে ক্লিন বোল্ড বিরাট কোহলি

আরও পড়ুনঃরাজস্থানের পরবর্তী মুখ্যমন্ত্রী সচিন তেন্ডুলকর, টিভি শো-কে ঘিরে চাঞ্চল্য

করোনা মুক্তির পর সোশ্যাল মিডিয়ায় মোর্তাজা জানিয়েছেন, ‘আলহামদুলিল্লাহ। আল্লাহর রহমতে ও আপনাদের সবার দোয়ায় আমার কনোরা ভাইরাস পরীক্ষার ফল নেগেটিভ এসেছে। আজকে রাতেই ফল জানতে পেরেছি। এই পুরো সময়টায় যারা পাশে ছিলেন, দোয়া করেছেন, অনেকে উদ্বিগ্ন ছিলেন ও নানা ভাবে খোঁজ নিয়েছেন বা নেওয়ার চেষ্টা করেছেন, সবার প্রতি কৃতজ্ঞতা।' নিজে মুক্ত হলেও, তার পরিবার এখনও নিস্তার পায়নি মারণ ভাইরাসের হাত থেকে। মোর্তাজার স্ত্রী এখনও মুক্তি পায়নি করোনা ভাইরাসের হাত থেকে। তবে তার শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল বলে জানিয়েছেন মোর্তাজা। বাড়িতে থেকেই তার চিকিৎসা চলছে বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশের প্রাক্তন  অধিনায়ক। স্ত্রী জন্য সোশ্যাল মিডিয়ায় মোর্তাজা লিখেছেন,'নাক্ত হওয়ার পর দুই সপ্তাহের বেশি পেরিয়ে গেলেও আমার স্ত্রীর করোনাভাইরাস পরীক্ষার ফল এখনও পজিটিভ। তবে সবার দোয়ায় সে ভালো আছে। তার জন্য দোয়া প্রার্থনা করছি।' মোর্তাজার স্ত্রীরও দ্রুত আরোগ্য কামনা করেছেন তার অনুরাগীরা।