ফের এক ক্রিকেটারের আত্মহত্যা। এবার আত্মহননের পথ বেছে নিলেন বাংলাদেশের তরুণ ক্রিকেটার সজীবুল ইসলাম। রাজশাহীর দুর্গাপুর উপজেলার ঝালুকা আমগাছি গ্রামের বাসিন্দা সজীবুল। নিজের ঘর থেকে ঝুলন্ত অবস্থায় উদ্ধার হয় সজীবুলের দেহ। এরপর কান্নায়া ভেঙ্ পড়ে গোটা পরিবার। মৃতের পরিবারের দাবি, বাংলাদেশের হয়ে অনূর্ধ্ব-১৯ ক্রিকেট বিশ্বকাপ দলে ছিলেন সজীবুল। সজীবুলের আত্মহত্যার ঘটনার শোকস্তব্ধ বাংলাদেশের ক্রিকেট মহল।

অনুর্ধ্ব ১৯ বিশ্বকাপে বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের স্ট্যান্ডবাই ক্রিকেটার হিসেবে দলে ছিলেন সজীবুল। এছাড়া অনূর্ধ্ব-১৫ এবং অনূর্ধ্ব-১৭ জাতীয় দলের হয়েও ক্রিকেট খেলেছিলেন তিনি। কিন্তু জাতীয় দলের জার্সি গায়ে আশানরুপ পারফরমেন্স করতে না পারায় দল থেকে বাদ পড়েন সজীবুল ইসলাম। আর সেই কারণেই ক্রমশ দেশের প্রথমসারির ক্রিকেট থেকে দূরে সরে যাচ্ছিলেন। আর তার উপর বঙ্গবন্ধু টি ২০ লিগেও সুযোগ না পাওয়ায় হতাশায় ভেঙে পড়েন ,সজীবুল ইসলাম। সেই কারণেই আত্মহত্যা বলে মনে করা হচ্ছে।

সজীবুলের আত্মহত্যার খবর সামনে আসার পরই স্তম্ভিত বাংলাদেশের ক্রিকেট মহল।পরিবারের অনুরোধে সজীবের মৃতদেহের ময়নাতদন্ত হয়নি। তরুণ এই ক্রিকেটারের মৃত্যুতে বাংলাদেশের ক্রিকেট মহলে শোকের ছায়া নেমে এসেছে৷ বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের গেম ডেভেলপমেন্ট ম্যানেজার আবু এনাম মহম্মদ কায়সার সজীবের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন৷  তবে শুধু মাত্র হতাশা না সজীবের মৃত্যুর পেছনে অন্য কোনও কারণ রয়েছে তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।