হ্যাকারদের জ্বালায় এবার সোশ্যাল মিডিয়া ছাড়ার সিদধান্ত নিলেন পাকিস্তানের প্রাক্তন পেস বোলার ওয়াকার ইউনিস। অভিযোগ এর আগেও একাধিকবার ওয়াকার ইউনিসের ট্যুইটার অ্যাকাউন্ট হ্যাক করেছিল হ্যাকাররা। কিন্তু এবার যে কাজ করেছে হ্যাকাররা তা ধৈর্য্যের বাধ ভেঙে দিয়েছেন প্রাক্তন পাক পেসারের। ওয়াকারের অভিযোগ, তার ট্যুইটার অ্যাকাউন্ট হ্যাক করে পর্ণ ভিডিও লাইক করেছে হ্যাকাররা। শুক্রবার সকালে উঠে অ্যাকাউন্ট খুলতেই পর্ণ ভিডিওটি দেখতে পান তিনি। তড়িঘড়ি ভিডিওটি সরানোর ব্যবস্থা ব্যবস্থা করেন পাক পেসার। একইসঙ্গে ঘটনার বিবরণ দিয়ে ট্যুইটারে নিজে একটি ভিডিও শেয়ার করেন তিনি। ভিডিওর মাধ্যমে পুরো ঘটনা সোশ্যাল মিডিয়ায় সকলকে জানান এই কিংবদন্তী পেসার। একইসঙ্গে সাবধানও করেন তিনি।

আরও পড়ুনঃঝুলে রইল টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ভাগ্য,১০ জুনের পর সিদ্ধান্ত নেবে আইসিসি

নিজের শেয়ার করা ভিডিও বার্তায় ওয়াকার ইউনিস তার অনুগামী, বন্ধু, শুভাকাঙ্খী ও সকলের উদ্দেশ্যে জানান,'খুব দুঃখের সঙ্গে জানাচ্ছি যে সকালে ঘুম থেকে উঠে দেখলাম কেউ আমার টুইটার অ্যাকাউন্ট হ্যাক করেছে। এবং নিম্নরুচির ভিডিয়ে লাইক করেছে আমার অ্যাকাউন্ট থেকে। এটা খুবই লজ্জা, আফশোসের ব্যাপার। আমার পরিবারের কাছে এটা খুব অস্বস্তিরও ব্যাপার। আমি ভাবতাম সোশ্যাল মিডিয়া মানুষের সঙ্গে যোগাযোগের মাধ্যম। ভেবে দেখলাম যে করেছে সে তো আর থামবে না। আগেও এমন ঘটনা ঘটেছিল। তাই আমি নিজেকেই সরিয়ে নিচ্ছি সোশ্যাল মিডিয়া থেকে। আমার পরিবারও তাই চায়।এই পরিস্থিতিতে সোশ্যাল মিডিয়াকে বিদায় জানানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া ছাড়া আমার কাছে অন্য কোনও উপায় নেই।'

 

 

পাকিস্তানের হয়ে ৮৭ টেস্টে ৩৭৩ উইকেট এবং ২৬২ একদিনের ম্যাচে ৪১৬ উইকেট নেওয়া ওয়াকারের এই পোস্ট সাড়া ফেলেছে নেটদুনিয়ায়। অনেকেই অবাক হয়েছেন গোটা ঘটনায়। ওয়াকারের পাশে দাঁড়িয়েছেন তা অনুগামীরা। ঘটনায় হ্যাকিং রুখতে সাইবার ক্রাইম বিভাগকে আরও কঠোর হওয়ার দাবি জানিয়েছে সকলে। একইসঙ্গে  হ্য়াকারদের কড়া শাস্তির দাবিও জাননিয়েছে নেটাগরিকরা। তবে ওয়াকার ইউনিসের সোশ্যাল মিডিয়া ছাড়ার সিদ্ধান্তে সকলেই ব্যথিত।

আরও পড়ুনঃজাপানি অ্যাপের মাধ্যমে ঘরে বসেই স্টেডিয়ামের আমেজ,আপনার কথা পৌছে যাবে প্লেয়ারদের কানে

আরও পড়ুনঃঘরোয়া লিগের সাথে সাথে ঘরোয়া কাপও ফিরছে ইতালিতে