অন্যতম নয়, বিগত কয়েক বছরে আইপিএলে কলকাতা নাইট রাইডার্সের সবথেকে প্রধান অস্ত্র বা প্লেয়ারের নাম নিঃসন্দেহে আন্দ্রে রাসেল। একার দায়িত্বে বহু হারা ম্যাচে অবিশ্বাস্যভাবে জয় এনে দিয়েছেন কেকেআরকে। গত বারের আইপিএলে সবচেয়ে মূল্যবান ক্রিকেটার ছিলেন তিনি। ১৪ ম্যাচে ৫১০ রান করেছিলেন। নিয়েছিলেন ১১ উইকেটও। ২০১৪ সালে কেকেআরে যোগ দিলেও, ৬ বছরের মধ্যেই দলের কোর মেম্বার হয়ে উঠছেন ক্যারেবিয়ান তারকা। দলের প্রতি, ইডেন গার্ডেন্সের প্রতি তার আবেগ, ভালবাসা তা সকলেরই জানা। তাই হয়তো কোনও রাখ-ঢাক না রেখে বলেই দিলে আন্দ্রে রাসেল, যে আইপিএল কেরিয়ারের শেষ ম্যাচটা খেলতে চাই কেকেআরের হয়ে। আর অবশ্য তা হবে ইডেন গার্ডেন্সে। গ্যালারিভর্তি সমর্থকের উপস্থিতিতে।

আরও পড়ুনঃকরোনার জেরে স্থগিত হয়ে গেল সায়নীর মলোকাই চ্যানেল জয়, মন খারাপ বাংলার 'সাগরিকার'

করোনা ভাইরাস মহামারীর জেরে এবছর অনির্দিষ্ট কালের জন্য স্থগিত হয়ে গিয়েছে আইপিএল। আদৌ আইপিএল টোয়েন্টি-টোয়েন্টি হবে কিনা তা জানা নেই কারোরই। কিন্তু পরিস্থিতি যেই দিকে যাচ্ছে তাতে টুর্নামেন্ট না হওয়ার সম্ভাবনাই বেশি বলে মনে করছেন ক্রিকেট বিশেষজ্ঞরা। এই পরিস্থিতিতে লকডাউন চলার কারণে বাড়িতেই রয়েছেন ক্রিকেটাররা। পরিবারের সঙ্গে সময় কাটাচ্ছে কেকেআর তারকা আন্দ্রে রাসেলও। লকডাউনে কেকেআর ফ্র্যাঞ্চাইজিকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে রাসেল বলেছেন যে, দলের হয়ে শেষ ম্যাচ খেলার আগে তা তিনি শাহরুখ খান ও নাইট শিবিরকে জানিয়েও দেবেন। ক্যারিবিয়ান অলরাউন্ডারের কথায়, “শাহরুখ ও সমস্ত কেকেআর স্টাফদের বলব যে, এটাই আমার শেষ আইপিএল। আর এটাই কলকাতায় আমার শেষ হোম ম্যাচ।”কোনও ফুটবলারের বিদায়ী ম্যাচ থাকলে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে যেমন পরিবেশ থাকে, তেমন পরিবেশই নিজের বিদায়ী ম্যাচে দেখতে চান রাসেল। জনতার থেকে বিদায়ী অভিবাদন নেওয়ার স্বপ্ন দেখেন তিনি। রাসেলের কথায়, “ইপিএলের মতো বড় ফুটবল লিগে যেমন হয় বা এনবিএ-তে বাস্কেটবল খেলোয়াড়রা যে ভাবে ঘোষণা করেন যে এটাই শেষ ম্যাচ আর জনতার উদ্দেশে হাত নাড়েন, সেই মুহূর্ত না আসা পর্যন্ত কেকেআরে থাকতে চাই।” 

 

 

আরও পড়ুনঃগড়াপেটায় রাজি না হওয়ায় হুমকি দিয়েছিল উমর,বিস্ফোরক অভিযোগ প্রাক্তন পাক ক্রিকেটারের

আরও পড়ুনঃধোনির জন্যই সফল হয়েছে রোহিত শর্মা, মন্তব্য গৌতম গম্ভীরের

পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে এবছর আইপিএল হওয়ার কথা বলেছেন রাসেল। ৩২ বছর বয়সি ক্যারেবিয়ান তারকার লক্ষ্য কলকাতাকে চ্যাম্পিয়ন করানো। তিনি বলেছেন, “ছয় মরসুম হয়ে গেল কেকেআরে আছি। প্রতিটা মুহূর্ত উপভোগ করেছি। সবচেয়ে মূল্যবান ক্রিকেটারের পুরস্কার পেতে ভালই লেগেছে। কিন্তু আমি আরও কিছু চাই। চ্যাম্পিয়ন হওয়াই লক্ষ্য। যাতে চ্যাম্পিয়ন হতে পারি, সেই কারণেই চাইছি এই বছর আইপিএল হোক।” তবে আইপিএল কেরিয়ারের শেষ ম্যাচ কলকাতার হয়ে খেলতে চাওয়ার রাসেলের ইচ্ছের কথা মনে ধরেছে কেকেআর ভক্তদের। ইতিধ্যেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে সেই বক্তব্য। আর হবে নাই বা কেন? রাসেলও তো নয়নের মণি কলকাতাবাসীর।