তিনি বিশ্বের সবচেয়ে শক্তিশালী দেশের প্রধান নেতা। কিন্তু, ভারতে এসে ক্রিকেটের ঈশ্বরকে ঘাঁটালে, তাঁরও যে মুক্তি  নেই তা প্রমাণ হয়ে গেল সোমবার। নেটিজেনরা তো বটেই এমনকী ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ামক সংস্থা আইসিসি-ও মার্কিন প্রেসিডেন্ট-কে ব্যঙ্গ করতে ছাড়ল না।

এদিন দুপুরে, ভারতে তাঁর সফরের প্রথম পর্যায়ে ডোনাল্ড ট্রাম্প 'নমস্তে ট্রাম্প' অনুষ্ঠানে যোগ দিয়েছিলেন। আহমেদাবাদের মোতেরা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে তাঁর ইচ্ছেমতো ৭০ লক্ষ লোক না হলেও প্রায় ১ লক্ষ মানুষ হয়েছিল। সেই বিপুল জনসমাগমের সামনে বলতে উঠে কয়েক মিনিটের মধ্যেই ভারত সম্পর্কিত বিষয়ে নিয়ে তাঁর ফলাতে শুরু করেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

উঠে আসে ভাংড়া নাচ, ডিডিএলজে, শোলে-র মতো বলিউটি সিনেমার কথা। আর ছিল ক্রিকেট-ও। দুই ভারতীয়. ক্রিকেটারের নাম নেন তিনি। একজন ক্রিকেট ঈশ্বর সচিন তেন্ডুলকর এবং অপরজন ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি। কিন্তু গোল বাঁধে সচিন তেন্ডুলকর-এর নাম উচ্চারণ করতে গিয়ে। অনেক ভারতীয় নামই মার্কিনিদের উচ্চারণ করতে অসুবিধা হতে পারে। কিন্তু, সচিন উচ্চারণ করা অত্যন্ত সহজ। ক্রিকেট বিশ্বে বিদেশিরাও স্বচ্ছন্দে তাঁর নাম উচ্চারণ করে থাকেন। কিন্তু, ট্রাম্পের মুখে সচিন হয়ে যায় সুচিন।

ট্রাম্প অবশ্য ভারতীয় তারকা ক্রিকেটারদের প্রশংসাই করছিলেন। তিনি বলেলেন, ভারত সেই দেশ, যেখানে, সচিন-বিরাট'এর মতো বিশ্বসেরা ক্রিকেটারদের উৎসাহ দেয় গোটা দেশ। কিন্তু তাতে চিড়ে ভেজেনি। তাঁর সুচিন উচ্চারণ নিয়ে অল্প সময়ের মধ্যেই তাঁকে কটাক্ষে ভরিয়ে দিয়েছে সোশ্যাল মিডিয়া। এমনকি আইসিসি-ও তাদের দলে যোগ দিয়েছে। অনেক ক্রিকেট অনুরাগীই জানিয়েছেন কোনওদিন ক্রিকেট না দেখে আচমকা কিছু নাম মনে রেখে বক্তৃতা দিতে গিয়েছিলেন ট্রাম্প।