কঠিন নিউজিল্যান্ড সফরের শুরুটা জয় দিয়েই করল ভারত। নিউজিল্যান্ডের দেওয়া ২০৪ রানের বিশাল টার্গেট ছয় বল বাকি থাকতেই ছুঁয়ে ফেলল ভারত। ফলে পাঁচ ম্যাচের টি টোয়েন্টি সিরিজে ১-০ এগিয়ে গেলেন বিরাট কোহলিরা। ২৯ বলে ৫৮ রানে অপরাজিত থেকে ভারতকে জয় এনে দেন শ্রেয়স আইয়ার। ম্যাচের সেরার পুরস্কারও পান তিনি। 

এ দিন অকল্যান্ড-এর ইডেন পার্কে টসে জিতে নিউজিল্যান্ডকে ব্যাট করতে পাঠিয়েছিলেন ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি। কিন্ত শুরু থেকেই ব্যাটে ঝড় তোলেন দুই কিউই ওপেনার মার্টিন গাপ্টিল এবং কলিন মুনরো। বাউন্ডারি লাইনে রোহিত শর্মার দুরন্ত ক্যাচে গাপ্টিল ফিরলেও ৪২ বলে ৫৯ রান করেন মুনরো। রস টেলর ২৭ বলে ৫৪ রানে অপরাজিত থাকেন। ২৬ বলে ৫১ রান করেন অধিনায়ক উইলিয়ামসন। ২০ ওভারে ৫ উইকেটে ২০৩ রান তোলে নিউজিল্যান্ড। বুমরা এবং চহাল ছাড়া কোনও ভারতীয় বোলারই সেভাবে দাগ কাটতে পারেননি। 

জবাবে রান তাড়া করতে নেমে শুরুতেই ধাক্কা খায় ভারত। দ্রুত ফিরে যান ওপেনার রোহিত শর্মা। কিন্তু অস্ট্রেলিয়া সিরিজের ফর্ম অব্যাহত রেখেই দুরন্ত ছন্দে ব্যাট করতে থাকেন কে এল রাহুল। তাঁর সঙ্গে জুটি বেঁধে কিউই বোলিংকে পাল্টা আক্রমণ করেন অধিনায়ক বিরাট কোহলি। ২৭ বলে ৫৬ রান করে দশম ওভারে ফেরেন রাহুল। এর কিছুক্ষণের মধ্যেই ব্যক্তিগত ৪৫ রানের মাথায় গাপ্টিল-এর অসাধারণ ক্যাচে ফিরতে হয় বিরাটকেও। 

ভারত বনাম নিউজিল্যান্ড টি -২০ সিরিজ শুরু, ম্যাচ লাইভ দেখবেন কীভাবে জেনে নিন

রাহুল, বিরাট পর পর ফিরে যাওয়ার পর যখন মনে হচ্ছিল ভারতের পক্ষে লক্ষ্যমাত্রায় পৌঁছনো কঠিন হবে, তখনই খেলাটা ধরে নেন শ্রেয়স আইয়ার। শিবম দুবে এবং মনীশ পান্ডেকে সঙ্গে নিয়ে এক ওভার বাকি থাকতেই ঠান্ডা মাথায় দলকে লক্ষ্যে পৌঁছে দেন তিনি। অকল্যান্ড- এর এই মাঠেই রবিবার ফের মুখোমুখি হবে দুই দল।