পাক ক্রিকেট বোর্ড এশিয়া কাপের আয়োজন করলে কোনও সমস্যা নেই। কিন্তু কোনও অবস্থাতেই পাকিস্তানে খেলতে যাবে না ভারত। এশিয়া কাপে অংশগ্রহণ নিয়ে নিজেদের অবস্থান এভাবেই স্পষ্ট করে দিল সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের বিসিসিআই। ভারতীয় বোর্ড পরিষ্কার করে দিয়েছে, পাক বোর্ড এশিয়া কাপ আয়োজন করলেও তা হতে হবে কোনও নিরপেক্ষ দেশে। কারণ এই মুহূর্তে যে ভারতের পক্ষে যে পাকিস্তানে খেলতে যাওয়া সম্ভব নয়, সেটা বুঝিয়ে দিয়েছে বিসিসিআই। 

বিসিসিআই- এর এক কর্তাকে উদ্ধৃত করে এমনই দাবি করেছে একটি সংবাদসংস্থা। ওই কর্তা জানিয়েছেন, পাক ক্রিকেট বোর্ড এশিয়া কাপ আয়োজন করলে তা নিয়ে ভারতীয় বোর্ড- এর কোনও আপত্তি নেই। কিন্তু ভারতীয় বোর্ড- এর আপত্তি পাকিস্তানে খেলতে যাওয়া নিয়ে। 

চলতি বছরই অস্ট্রেলিয়ায় টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপ রয়েছে। তার আগে এবছরের এশিয়া কাপ ভারত সহ এশিয়ার দলগুলির কাছে বড় প্রস্তুতি মঞ্চ। কিন্তু সমস্যা হয়েছে এ বারের এশিয়া কাপের সংগঠন নিয়ে। ওই বিসিসিআই কর্তা বলেছেন, 'কোনও অবস্থাতেই এশিয়া কাপ খেলতে পাকিস্তানে যাবে না ভারত। এবার যদি এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিল ভারতকে বাদ দিয়েই এশিয়া কাপের আয়োজন করতে চায়, তাহলে ঠিক আছে। কিন্তু ভারতে এশিয়া কাপে খেলাতে গেলে পাকিস্তানকে বাদ দিয়ে তা অন্য দেশে হতে হবে।'

আরও পড়ুন- খেলা ঘোরালেন শামি, সুপার ওভারে রুদ্ধশ্বাস জয় এল রোহিতের হাত ধরে

২০১৮ সালেও এশিয়া কাপের আয়োজন নিয়ে একই ধরনের সমস্যা হয়েছিল। সেবার টুর্নামেন্ট আয়োজনের দায়িত্বে ছিল বিসিসিআই। কিন্তু ভারতে আসার জন্য পাকিস্তান দলের সদস্যদের ভিসা পেতে সমস্যা হওয়ায় শেষ পর্যন্ত টুর্নামেন্ট ভারত থেকে সরিয়ে ইউএই- তে নিয়ে যেতে হয়। এবারও সেরকম কিছুর হওয়ার সম্ভাবনা প্রবল। কারণ ভারতকে বাদ দিয়ে টুর্নামেন্ট আয়োজনের সম্ভাবনা যে ক্ষীণ, তা বলার অপেক্ষা রাখে না। 

বেশ কয়েক বছর বাদে ফের ঘরের মাঠে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের আয়োজন করছে পাকিস্তান। গত বছরের শেষ দিকে শ্রীলঙ্কা পাকিস্তান সফরে গিয়েছিল। বর্তমানে পাকিস্তান সফরে গিয়েছে বাংলাদেশ দল। কিন্তু তার পরেও পাকিস্তানে নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়ে সংশয় রয়েই গিয়েছে। যে কারণ বাংলাদেশ সফর থেকে নাম প্রত্যাহার করে নিয়েছেন বাংলাদেশের তারকা কিপার ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহিম। বাংলাদেশ দলের বেশ কয়েকজন বিদেশি সাপোর্ট স্টাফও পাকিস্তান সফরে যেতে রাজি হননি।