করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর পাশে প্রথম থেকেই ছিলেন ভারতীয় ক্রিকেট দলের প্রাক্তন ও বর্তমান ক্রিকেটাররা। তা সে জনতা কার্ফু হোক আর ২১ দিনের লকডাউন। এবার করোনা যুদ্ধে দেশের একতা প্রমাণের জন্য ৫ এপ্রিল রাত  রাত ৯টায় ৯ মিনিটের জন্য ঘরের আলো বন্ধ রেখে প্রদীপ, মোমবাতি বা মোবাইলের ফ্ল্যাশ লাইট জ্বালাতে বলেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। প্রধানমন্ত্রীর এই উদ্যোগের পাশেও দাঁড়ালেন ভারতীয় দলের ক্রিকেটাররা। সমর্থন জানিয়ে দাশবাসীকে পাশে দাঁড়ানোর জন্য ও একসঙ্গে করোনার বিরুদ্ধে লড়াই করার জন্য সোশাল মিডিয়ায় ট্যুইট করেছেন ভারতীয় ক্রিকেট দলের অধিনায়ক বিরাট কোহলি, ওয়ান ডে রোহিত শর্মা ও অলরাউন্ডার হার্দিক পান্ডিয়া।

আরও পড়ুনঃলকডাউনের সময় প্রতিদিন ১০ হাজার মানুষের খাওয়ার দায়িত্ব নিলেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়

আরও পড়ুনঃকরোনার কোপে ৮ অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেটারের বিয়ে, আপাতত স্থগিত তাদের সাত পাকে বাধা

প্রধানমন্ত্রীর উদ্যোগকে পূর্ণ সমর্থন জানিয়ে এমনটাই টুইট করলেন ভারত অধিনায়ক বিরাট অধিনায়ক। বিরাট এদিন টুইটারে লেখেন, ‘স্টেডিয়ামের শক্তি যেমন থাকে গ্যালারির দর্শকেরা, তেমনই একটা রাষ্ট্রের শক্তি তাঁর জনগণ। আজ রাত ৯টায় ৯ মিনিটের জন্য পৃথিবীকে দেখিয়ে দিন আমাদের ঐক্য। আমাদের স্বাস্থ্যকর্মী যোদ্ধাদের জানিয়ে দিন আমরা সবসময় তাদের পাশে আছি।’

 

 

একা কোহলি নন, প্রধানমন্ত্রীর উদ্যোগকে সমর্থন জানিয়ে টুইট করেছেন ডেপুটি রোহিত শর্মাও। হিটম্যান’ টুইটে এদিন লেখেন, ‘আমাদের জীবন নির্ভর করছে এই টেস্ট ম্যাচ জয়ের পর। আমরা এটাতে ভুল করতে পারি না। তাই আজ রাত ৯টায় ৯ মিনিটের জন্য প্রমাণ করুন আমরা কতটা সংহতিপরায়ণ। লাইট ফর ফাইট। আপনারা আমার সঙ্গে আছেন তো?’

 

 

নমোর এই উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়ে টুইট করেছেন জাতীয় দলের নির্ভরযোগ্য অল-রাউন্ডার হার্দিক পান্ডিয়া। তাঁর কথায়, স্বাস্থ্যকর্মীরা যারা আমাদের অন্ধকার থেকে আলোয় ফেরার দিশা দেখাচ্ছেন তাদের জন্য আলো জ্বালান। নরেন্দ্র মোদীজি আমরা আপনার সঙ্গে আছি।’

 

 

উল্লেখ্য করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলায় শুক্রবারই দেশের ৪০ জন ক্রীড়াবিদদের নিয়েও বৈঠক করেছেন প্রধামমন্ত্রী। বৈঠকে ছিলেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়, বিরাট কোহলি, সচিন তেন্ডুলকর, মেরি কমের মতো ব্যক্তিত্বরা। বিশ্বব্যাপী মহামারি পরিস্থিতি নিয়ে প্রত্যেকের সঙ্গে আলোচনা করেন প্রধানমন্ত্রী। করোনা নিয়ে সচেতনতা বৃদ্ধিতে তাঁদের এগিয়ে আসার বার্তা দেন মোদী।  সৌরভ-সচিন-বিরাট ছাড়াও এই ভিডিও কনফারেন্সে ছিলেন পিটি উষা, পুল্লেলা গোপীচাঁদ, বিশ্বনাথন আনন্দ, হিমা দাস, বজরং পুনিয়া, পিভি সিন্ধু, রোহিত শর্মা, বীরেন্দ্র শেহওয়াগ, যুবরাজ সিং এবং চেতেশ্বর পূজারার মতো ক্রীড়াব্যক্তিত্বরা। এই বৈঠকে করোনা ভাইরাস নিয়ে সচেতনতা ও সতর্কতা অবলম্বনের উপর জোর দেওয়া ছাড়া দেশের পরিস্থিতি নিয়েও আলোচনা হয়। সচেতনতা বৃদ্ধিতে ক্রীড়াব্যক্তিত্বদের এগিয়ে আসার কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী।

আরও পড়ুনঃকরোনার কোপে স্থগিত হয়ে গেল ফিফা অনুর্ধ্ব ১৭ ও ২০ মহিলা বিশ্বকাপ