Asianet News BanglaAsianet News Bangla

IPL 2021, KKR vs DC - 'নারাইন' ঝড়ে বেলাইন রাজধানী এক্সপ্রেস, ৩ উইকেটে দুরন্ত জয় কেকেআরের

আইপিএল ২০২১-এর ৪১তম ম্যাচে দিল্লি ক্যাপিটালস (Delhi Capitals)-কে ৩ উইকেটে হারিয়ে দিল কলকাতা নাইট রাইডার্স (Kolkata Knight Riders)। সুনীল নারাইন (Sunil Narine) ব্যাটে বলে দুরন্ত পারফর্ম করলেন। 
 

IPL 2021, KKR vs DC - KKR wins by 3 wickets against DC ALB
Author
Kolkata, First Published Sep 28, 2021, 7:18 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

আইপিএল ২০২১-এর ৪১তম ম্যাচে দিল্লি ক্যাপিটালস (Delhi Capitals)-কে ৫ উইকেটে হারিয়ে প্লেঅফের দৌড়ে ভালমতোই রইল কলকাতা নাইট রাইডার্স (Kolkata Knight Riders)। ১৫ ওভারের শেষে ৯৮ রানে ৫ উইকেট হারিয়ে বিপদে পড়েছিল কেকেআর। আর তারপরই ১৬তম ওভারে দেখা গেল নারাইন ঝড় (Sunil Narine)। যার জেরে ১০ বল বাকি থাকতে আরও একটি ম্যাচ জিতে ১১ ম্যাচে ১০ পয়েন্ট দখল করল কেকেআর। শেষ পর্যন্ত ব্যাট হাতে ১০ বলে ২১ রান করে গেলেন সুনিল নারাইন। তার আগে বল হাতেও ৪ ওভারে মাত্র ১৮ রান দিয়ে ২ উইকেট নিয়েছিলেন তিনি। 

বস্তুত, নারাইনের ওই গুরুত্বপূর্ণ ক্যামিও ইনিংসটি না থাকলে এদিন কেকেআর-এর জেতা সম্ভবত হত না। একেবারে প্রথম থেকে নিয়মিত ব্যবধানে উইকেট হারিয়েছিল মর্গান বাহিনী। এদিন টসে জিতে ডিসিকে প্রথমে ব্যাট করতে ডেকেছিলেন মর্গান। কেকেআর বোলারদের দুরন্ত পারফরম্যান্সের জেরে তারা ২০ ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে ১২৭-এর বেশি রান তুলতে পারেনি। পৃথ্বি শ-এর বদলে প্রথম একাদশে আসা স্টিভ স্মিথ ওপেন করতে নেমে ৩৪ বলে ৩৯ রান করেন। এছাড়া শুরুতে শিখর ধাওয়ান ২০ বলে ২৪ করেছিলেন, আর ঋষভ পন্থ শেষ অবধি থেকে ৩৬ বলে ৩৯ রান করেছিলেন। 

আর কেউ দ্বিতীয় অঙ্কের রান পাননি। কেকেআর-এর হয়ে নারাইন ছাড়াও, দুটি করে উইকেট নিয়েছেন, লকি ফার্গুসন (১০-২) এবং ভেঙ্কটেশ আইয়ারও (২৯-২)। তবে লকি ফার্গুসন ২ ওভার বল করার পরই চোট পেয়ে মাঠ ছাড়েন। পরে একেবারে শেষে ব্যাট করতে নামলেও, খোঁড়াচ্ছিলেন। কাজেই তাঁকে নিয়ে উদ্বেগ থাকবে। টিম সাউদির এদিন কেকেআর-এর হয়ে অভিষেক হল। তিনি খেলেন রাসেলের বদলে। প্রথম দিন তিনিও একটি উইকেট (২৯-১) পেয়েছেন। প্রসিদ্ধ কৃষ্ণর বদলে খেলা সন্দীপ ওয়ারিয়র উইকেট পাননি। বরুণ চক্রবর্তীও উইকেটবিহীন হলেও ৪ ওভারে মাত্র ২৪ রান দেন। 

রান তারা করতে নেমে দিল্লির মতো নিয়মিত ব্যবধানে উইকেট হারায় কেকেআর-ও। ওপেন করতে নেমে এদিনও শুবমান গিল ৩৩ বলে ৩০ রান করে গেলেন। কিন্তু, সেই ৩০ রান করার পরই উইকেট ছুঁড়ে দিলেন তিনি। রাবাডার বলে ছয় মারতে গিয়ে বাউন্ডারি লাইনে শ্রেয়সের হাতে ধরা পড়েন তিনি। তবে সবথেকে চিন্তায় রেখেছে অধিনায়ক মর্গানের ফর্ম। এদিনও তিনি ০ রানে আউট হলেন। উইকেটে ছিলেন মাত্র ২ বল। রীতিমতো ফাঁদ তৈরি করে তাঁকে আউট করলেন অশ্বিন। এবার কিন্তু ব্যাটসম্যান মর্গানের ফর্ম নিয়ে কথা শুরু হবে। 

তার আগে ভেঙ্কটেশ আইয়ার ১৫ বলে ১৪ রান করে ললিত যাদবের বলে বোল্ড হয়েছিলেন। তবে এদিন তিনি ব্যাটিং ব্যর্থতা তিনি বল হাতে ঢেকে দিয়েছেন। রাহুল ত্রিপাঠী এদিন রান পাননি (৫ বলে ৯)। দীনেশ কার্তিক ১৪ বলে ১২ রানের বেশি করতে পারেননি। আবেশ খানের বলে ব্যাটের কানার লাগিয়ে বোল্ড হলেন তিনি। নিতিশ রানা চার নম্বরে নেমে ২৭ বলে ৩৬ রান করে অপরাজিত থেকে দলকে জিতিয়ে মাঠ ছাড়লেন। তবে, এদিন শারজার উইকেট ব্যাটিংয়ের পক্ষে যথেষ্ট কঠিন ছিল। পরপর দুই ম্যাচে শারজায় ১২০-১২৫ রানের খেলা হল। 

 

বিস্তারিত আসছে
 

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios