অবশেষে সব জল্পনার অবসান। শেষ হল হাফিজের করোনা রিপোর্ট নিয়ে রহস্যেরও। ইংল্যান্ড যাওয়ার ছাড়পত্র পেলেন মহম্মদ হাফিজ সহ অন্যান্য করোনায় আক্রান্ত হওয়া পাকিস্তান ক্রিকেটাররা। পরপর  দুবার করোনা টেস্ট নেগেটিভ আসল হাফিজ সহ ৬ ক্রিকেটারের। ইংল্যান্ড প্রশাসনের নিয়ম অনুয়ায়ী কোনও করোনা আক্রান্ত ব্যক্তির পরপর দুবার করোনা রিপোর্ট নেগেটিভ আসলেই তাকে দেশে ঢোকার অনুমতি দেওয়া হবে। তাই হাফিজজেরও ইংল্যান্ড যেতে আর কোনও বাধা থাকল না। 

আরও পড়ুনঃভারতে নিষিদ্ধ টিকটক,কি করবেন ওয়ার্নার, খোঁচা অশ্বিনের

এর আগে হাফিজ সহ সহ পাকিস্তানের দশ ক্রিকেটারের করোনা রিপোর্ট প্রথম পজেটিভ আসে। কিন্তু হাফিজ বাইরে আলাদাভাবে পরীক্ষা করালে সেই রিপোর্ট নেগেটিভ আসে। সেই রিপোর্টের কপি সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করেই জটিলতা বাড়ায় হাফিজ। সেই রিপোর্টকে মান্যতা না দিয়ে পিসিবি আবার রিপোর্ট করালে তখন ফের হাফিজের রিপোর্ট পজেটিভ আসে। তারপর পাকিস্তানে উড়ে যাওয়ার আগে সব প্লেয়ারদের ফের করোনা পরীক্ষা তখন হাফিজের ফল নেগেটিভ আসলেও, ইংল্যান্ডের সরকারের নিয়মের জন্য দলের সঙ্গে যেতে পারেননি হাফিজ।  যে দশ জন ক্রিকেটার করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন তাঁদের মধ্যে ছয় জনের দ্বিতীয় পরীক্ষার ফল নেগেটিভ আসে।

আরও পড়ুনঃঅভিনব উদ্যোগ 'মহারাজ' ভক্তদের, জন্মদিনে আসছে সৌরভের ছবি দেওয়া মাস্ক

আরও পড়ুনঃ'ধোনির অধিনায়কত্বে রয়েছে সৌরভের গুণ'

তৃতীয়বারের জন্য পরীক্ষা করা হয় তাঁদের। ওই ছয় ক্রিকেটার হলেন- ফকর জামান, মহম্মদ হাফিজ, ওয়াহাব রিয়াজ, মোহম্মদ রিজওয়ান, মোহম্মদ হাসনাইন, সাদাব খান। তৃতীয়বার তাঁদের করোনা পরীক্ষার ফল নেগেটিভ আসায় ইংল্যান্ডে পাঠানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড। তারা বিশেষ বিমানে ইংল্য়ান্ডে গিয়ে দলের সঙ্গে যোগ দেবেন। ইংল্যান্ডে পৌছে ফের তাদের করোনা পরীক্ষা করা হবে। অপরদিকে, রবিবার ২০ জন ক্রিকেটার ও ১১ জন সাপোর্ট স্টাফ সহ পাকিস্তান দল ইংল্যান্ডে পৌছে করোনা পরীক্ষার পর কোয়ারেন্টাইনে রয়েছে। কোয়ারেন্টিন শেষে ১৩ জুলাই থেকে ডার্বিশায়ারে অনুশীলন শুরু করবেন বাবর আজমরা।