জানাই ছিল, শুধু অপেক্ষা ছিল সরকারি ঘোষণার। অবশেষে সোমবার বৈঠকের পর আইসিসি ঘোষণা করল চলতি বছরে অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে হতে চলা টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ স্থগিত রাখা হল। এক বছর পিছিয়ে দেওয়া হল টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সময়সূচি। পরের বছর অক্টোবর-নভেম্বর মাসে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ আয়োজিত হবে বলে জানানো হয়েছে আইসিসির তরফে। অর্থাৎ করোনা ভাইরাসের কারণে অলিম্পিক, ইউরো কাপ, কোপা আমেরিকা, অনূর্ধ্ব-১৭ ফিফা মহিলা বিশ্বকাপের পর এবার পিছিয়ে গেল টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপও।

আরও পড়ুনঃকরোনা কোপ এবার ব্যালন ডিঅর-এ, ১৯৫৬-র পর প্রথম দেওয়া হবে না পুরস্কার

চলতি বছর ১৯ অক্টোবর শুরু হওয়ার কথা ছিল কুড়ি-বিশের বিশ্বকাপ। শেষ হত ১৫ নভেম্বর। কিন্তু বর্তমান পরিস্থিতিতে অজি বোর্ডও চাইছিল এবারের মতো যেন টুর্নামেন্ট স্থগিতেরই সিদ্ধান্ত নেয় বিশ্ব ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ামক সংস্থা। কারণ এতগুলো দলের ক্রিকেটারদের কোয়ারেন্টাইনের ব্যবস্থা, হোটেলের ব্যবস্থা করা মুখের কথা নয়। তাছাড়া খেলার মাঠেও সকলের সুরক্ষার গুরু দায়িত্ব নিতে হবে। তাই আইসিসির চূড়ান্ত সিদ্ধান্তে স্বস্তিই পেল ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া। সোমবার আইসিসির মিটিংয়ে সিদ্ধান্ত হয়,২০২১ সালের অক্টোবর-নভেম্বরে হবে টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। পরের বছরও একই সময়ে হবে টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। ২০২৩ সালে ভারতে হবে পঞ্চাশ ওভারের বিশ্বকাপ। পরের দুটো টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপ কোথায় হবে তা এখনও পরিষ্কার নয়।

আরও পড়ুনঃইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে সিরিজ দিয়েই মাঠে ফিরছে অস্ট্রেলিয়া, জেনে নিন সিরিজের ক্রীড়াসূচি

আইসিসির এই সিদ্ধান্তে খুশি বিসিসিআই। বিসিসিআই পরিকল্পনা করেই রেখেছিল বিশ্বকাপ বাতিল হলে ওই উইন্ডোতে আইপিএল করা হবে। আইসিসির বিশ্বকাপ নিয়ে ঘোষণার পর আইপিএল আয়োজনে বিসিসিআইয়ে আর কোনও বাধা রইল না। বিশ্বকাপ বাতিলের আভাস থাকায় আগে থেকেই  আইপিএল আয়োজনের প্রস্তুতি শুরু করে দিয়েছিল ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড। দেশের মাটিতে না হলে, পছন্দ করে রাখা হয়েছে আরব আমিরশাহির নামও। প্রস্তুতি শুরু করে দিয়েছে বিভিন্ন ফ্র্যাঞ্চাইজি দলগুলি। আইসিসির বৈঠকের পর ক্রিকেট বিশেষজ্ঞরা নিশ্চিত যে, চলতি বছরেই বসতে চলেছে আইপিএলের আসর।

আরও পড়ুনঃচিনে নিন বিশ্বের সব থেকে সেক্সিয়েস্ট ফুটবল রেফারিদের, যাদের রূপ ঝড় তোলে হৃদয়ে