আইপিএল চলার কারণে এতদিন জৈব সুরক্ষা বলয়ের মধ্যে ছিলেন সমস্ত ক্রিকেটাররা।  বাইরের কারও সঙ্গে দেখা করাতেও জারি ছিল নিষেধাজ্ঞা। হোটেলের বাইরে পর্যন্ত বেরোতে পারেননি কোনও ক্রিকেটার। পরিবারকে সঙ্গে নিয়ে গেলে তাদেরও থাকতে হয়েছে সমস্ত নিয়ম মেনে। আইপিএল শেষে এবার অস্ট্রেলিয়া সফরের জন্য অজিভূমে পৌছে গিয়েছে টিম ইন্ডিয়া। করোনার কারনে ওডিআই,টি২০,টেস্ট তিন  ফর্ম্যাটের দলই একসঙ্গে পারি জমিয়েছে অস্ট্রেলিয়ায়। আর সেখানে গিয়ে প্রবেশ করতে হয়েছে আরও একটি জৈব সুরক্ষা বলয়ে।

আরও পড়ুনঃক্রিকেট ছেড়ে এবার পাকাপাকি মুরগি ব্যবসায়ী ধোনি, করবেন কালো মুরগির কেনা-বেচা

প্রায় দুমাসের সফর হওয়ায় ভারতীয় বোর্ড পরিবারকেও নিয়ে যাওয়ার অনুমতি দিয়েছে। ভারতীয় ক্রিকেট দলরে বেশ কিছু প্লেয়ার পরিবারকে নিয়েই গিয়েছে অস্ট্রেলিয়াতে। তাদের মধ্য়ে রয়েছেন রবীন্দ্র জাদেজা, চেতশ্বর পুজারা, অজিঙ্কে রাহানে ও রবিচন্দ্রন অশ্বিন। আর ১৩ নভেম্বর শুক্রবার ছিল ভারতীয় স্পিনার রবিচন্দ্রন অশ্বিনের নবম বিবাহ বার্ষিকী। কিন্তু কোয়ারেন্টাইনে থাকার কারণে কোনওভাবেই বিবাহ বার্ষিকী সেলিব্রেট করতে পারছেন না রবিচন্দ্রন অশ্বিন ও তার স্ত্রী প্রীথি এবং দুই কন্যা। হোটেলে বন্দি অবস্থায় রয়েছেন সকলেই। 

আরও পড়ুনঃআফ্রিকা থেকে তাজমহলে এসে করেছিলেন প্রেম নিবেদন, জানুন রোমান্টিক এবি ডিভিলিয়ার্সের প্রেম কাহিনি

এই যন্ত্রণা সহ্য করতে না পেরেই বিবাহ বার্ষিকীর দিন একটি মজার পোস্ট শেয়ার করেন অশ্বিনের স্ত্রী। য়েই ছবিতে দেখা যায় অশ্বিনের গলা টিপে ধরেছেন প্রীথি। আর ভারতীয় তারকা স্পিনারের প্রাণ বেরিয়ে যাওয়ার মত অবস্থা।এই ছবি শেয়ার করে অশ্বিনের স্ত্রী লেখেন,'একসঙ্গে ৯ বছর। এভাবেই আনন্দে কাটুক। কারণ হোটেলে বন্দি থেকে,যেখানে পালানোর কোনও জায়গা নেই, সেখানে এর থেকে ভালো রোমান্টিক আর কি হতে পারে।' প্রীথির এই মজাদার পোস্ট সোশ্যাল মিডিয়ায়  সকলেই খুব পছন্দ করেছেন। অশ্বিনও মজা করে পাল্টা প্রতিক্রিয়াতে লিখেছেন,'বিগত ৯ বছরও এইভাবেই কেটেছে'। ভারতীয় তারকা জুটিকে বিবাহ বার্ষিকীর শুভেচ্ছাও জানিয়েছেন সকলেই।