সালটা ছিল ২০১৩, ইংল্যান্ডে আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে রোহিত শর্মাকে একদিনের ক্রিকেটে মিডিল অর্ডার থেকে তুলে এনে পাকাপাকি ওপেনারার আসনে বসিয়ে দিয়েছিলেন ভারত অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি। তারপর থেকে আর পেছনে ফিরে তাকাতে হয়নি মুম্বাইয়ের ডান হাতি ব্যাটসম্যানকে। একদিনের ক্রিকেটের সেরার তালিকায় নাম লিখিয়ে ফেলেছেন রোহিত। বিশ্বের প্রথম ক্রিকেটার হিসেবে একদিনের ক্রিকেটে তিনটি ডাবল সেঞ্চুর করেছেন। ভারতীয় সীমিত ওভারের দলের সহ অধিনায়কও। কিন্তু টেস্ট ক্রিকেটে সেই দাপট দেখা যায়নি রোহিতের ব্যাটে। টানা সুযোগটাও পেতেন  না। 

আরও পড়ুন - সৌরভের আবিষ্কার তিনি, সেই যুবরাজের শুভেচ্ছাতেও 'হতাশা'

গত কয়েক মাসে ভারতীয় টেস্ট ক্রিকেট ওপেনারের সমস্যায় ভুগছিল, সেই সমস্যা মেটাতে প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক সৌরভ একটা রাস্তা বাতলে দিয়েছিলেন। একদিনের ক্রিকেটর মত টেস্টেও রোহিতকে ওপেনারের ভূমিকায় ব্যবহার করা হোক। কোহলি-শাস্ত্রী ঘরের মাঠে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে সেই টোটকাই ব্যবহার করলেন। আর আবিস্কার হল এক অন্য রোহিত শর্মার। প্রথম টেস্টে দুই ইনিংসে শতরানের পর এবার রাঁচিতে শেষ টেস্টের প্রথম ইনিংসে ডাবল সেঞ্চুরি। রোহিতের কেরিয়ার বদলে দেওয়া ধোনির শহরে এল এই দ্বিশতরান। অনেকেই বলছেন মাহিকে সম্মান জানালেন হিটম্যান। 

আরও পড়ুন - সৌরভ বোর্ড সভাপতি হতেই বিরাট করলেন বাই-বাই, গল্পটা আসলে কী

প্রথম ডবল সেঞ্চুরি করার পাশাপাশি শনিবারই দুটি রেকর্ড পকেটে পুড়ে ফেলেছেন হিটম্যান। প্রথমটি বিশ্ব রেকর্ড, একটি টেস্ট সিরিজে সব থেকে বেশি ছক্কা হাঁকানোর। আর দ্বিতীয় ভারতীয় ব্যাটসম্যান হিসেবে একটি সিরিজে তিনটি বা তার বেশি সেঞ্চুরি করার। এর আগে এমনটা করেছিলেন সুনীল গাভাসকার। একটি সিরিজে ৫০০ বেশি রান করা টেস্ট ওপেনারদের তালিকাতও এবার রোহিত শর্মা। বিনু মানকড়, বুধি কুন্দরন, সুনীল ভাগাসকার, বীরেন্দ্র শেহওয়াগের পর রোহিতের ব্যাট থেকে এল এই রেকর্ড। রোহিতের এই ব্যাটিং বিপ্লবের মাঝে টেস্ট কেরিয়ারের ১১ তম শতরান করলেন অজিঙ্কে রাহানে। শনিবার টেস্টর প্রথম দিন তিন উইকেট হারিয়ে যখন চাপে ছিল ভারতীয় দল, তখন দুই সহ অধিনায়কের ব্যাটে প্রোটিয়াদের হোয়াইট ওয়াশ করার মঞ্চটা যেন তৈরি করে ফেলল ভারত। ২৬৭ রানের পার্টনারশিপ দুই তারকা ব্যাটসম্যানের। 

আরও পড়ুন - টস করতে দুই অধিনায়ক নিয়ে নামল দক্ষিণ আফ্রিকা, রাঁচি টেস্টের শুরুতেই চমক