বিপদের দিনে পের মহারাষ্ট্রবাসীর পাশে দাঁড়ালেন ক্রিকেটের ঈশ্বর সচিন তেন্ডুলকর। নিস্বর্গ ঝড়ে ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে দাঁড়ানোর উদ্যোগ নিলেন মাস্টার ব্লাস্টার। কলকাতা তথা বাংলায় আমপানের তান্ডবের কথা জানেন সচিন তেন্ডুলকর। তার কদিন পরেই বাণিজ্য নগরীতে আছড়ে পড়ে ঘূর্ণিঝড় নিস্বর্গ। ঝড়ে মুম্বই নগরীর খুব একটা ক্ষতি না হলেও, সমুদ্রের দার বসবাসকারী মানুষদের ব্যাপক ক্ষতি করে নিস্বর্গ। বিদ্যুৎ থেকে পানীয় জল এখনও নেই বহু বাড়িতে। নানাবিধ সমস্যা নিয়ে দিন য়াপন করছেন আলিবাগ থেকে রত্নগিরি এই বিশাল এলাকার মানুষ। এই সকল মানুষদের কথা ভেবেই সাহায্যের হাত বাড়িয়ে এগিয়ে এলেন সচিন তেন্ডুলকর।

আরও পড়ুনঃপ্লেয়ার সহ সকলের স্বাস্থ্য সুরক্ষায় নতুন অ্যাপ আনছে আইএসএল কর্তৃপক্ষ

এই সমস্ত এলাকার রূপ ফিরিয়ে দেওয়ার জন্য সরকারও সাধ্যমত চেষ্টা করছেন। কিন্তু সচিনের প্রাথমিক লক্ষ্য এই সকল এরিয়ায় বিদ্যুৎ সংযোগ ফিরিয়ে আনা। এই সকল এলাকার মানুষদের সাহায্যের জন্য অগাস্ট অনলাইনে এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। । অনুষ্ঠানে অংশ নিতে নানা জগতের মানুষ এগিয়ে এসেছেন। লেখক, কবি, গায়ক-গায়িকাদের সঙ্গে ক্রিকেটাররাও আছেন। এই বিষয়ে যাঁর কাছে সাহায্য চাওয়া হয়েছে, তাঁরা ফিরিয়ে দেননি। সংগীতে আছেন শংকর মহাদেবন, শ্রেয়া ঘোষাল। ক্রিকেটারদের মধ্যে থাকছেন অজিঙ্ক রাহানে, কেদার যাদব, দিলীপ বেঙ্কসরকার, সচিন।  এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত বিশিষ্টরা নিজেদের জীবনের কঠিন সময়ের অভিজ্ঞতার কথা তুলে ধরবেন। আর এই অনুষ্ঠান থেকে যে টাকা উঠবে তা তুলে দেওয়া হবে দুঃ,স্থদের সাহায্যে। ইতিমধ্যেই অনেক টাকা অনুদান উঠে গিয়েছে। আশা করা হচ্ছে আগামী কয়েক দিনে অনেক টাকাই উঠবে।

আরও পড়ুনঃভারতের প্রাক্তন ক্রিকেট অধিনায়ক,অর্থাভাবে আজ রাস্তার ধারে বসে পাথর ভাঙছেন

আরও পড়ুনঃদেশের অধিনায়ক ছিলেন, বর্তমানে অভাবের তাড়নায় একটি চাকরির জন্য ঘুরছেন দরজায় দরজায়

এর আগে করোনা মোকাবিলাতেও সাহায্যের হাত বাড়িয়ে এগিয়ে ও এসেছেন সচিন তেন্ডুলকর। মহারাষ্ট্র সরকারের ত্রাণ তহবিলে ২৫ লক্ষ টাকা ও কেন্দ্রীয় সরকারের ত্রাণ তহবিলে ৫০ লক্ষ টাকা অনুদান দিয়েছিলেন মাস্টার ব্লাস্টার। এছাড়াও বিভিন্ন এনজিও-র সঙ্গে হাত মিলিয়ে বিভিন্ন সময় করোনা মোকাবিলায় সাহায্যে করেছেন লিটল মাস্টার। এবার নিস্বর্গ ঝড়ে ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে দাঁড়ানোতেও সচিনের ভুমিকাকে কুর্ণিশ জানিয়েছেন তার অনুগামী, ভক্তরা।