এশিয়ানেট নেট নিউজ বাংলা তুলে ধরেছিল বিশেষভাবে সক্ষম ভারতীয় ক্রিকেট দলের প্রাক্তন অধিনায়ক দীনেশ শেনের কথা। বর্তমানে অভাবের তাড়নায় কীভাবে প্রতিটি অফিসের দরজায় দরজায় একটা চাকরির জন্য ঘুরছেন প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক। এবার আরও এক ভারতীয় ক্রিকেট দলের অধিনায়কের করুণ কাহিনী। উত্তরাখন্ডের বাসিন্দা রাজেন্দ্র সিং ধামি। ভারতীয় হুইলচেয়ার ক্রিকেট দলের প্রাক্তন অধিনায়ক তিনি।  একসময় দেশকে সম্নানিত করেছেন ঠিক যেইভাবে ধোনি,কোহলিরা করেন। কিন্তু আজ তিনি পেটের তাগিদে শ্রমিক। দুহাতে ব্যাট-বল তুলে নেওয়ার বদলে এখন হাতুড়ি দিয়ে পাথর ভাঙার কাজ করে জীবন চালাচ্ছেন ধামি।

আরও পড়ুনঃদেশের অধিনায়ক ছিলেন, বর্তমানে অভাবের তাড়নায় একটি চাকরির জন্য ঘুরছেন দরজায় দরজায়

করোনা ভাইরাস মানুষের জীবন থেকে কেড়ে নিয়েছে অনেক কিছুই। প্রিয়জন, রুটি-রুজি থেকে সুখ-শান্তি। তালিকায় বাদ নেই কোনও কিছুই। এই মারণ ভাইরাসের কারণেই এই করুণ অবস্থা রাজেন্দ্র সিং ধামির। ২৫ মার্চ থেকে দেশে ৩১ মে পর্যন্ত লকডাউন পর্ব চলে। এরপর জুন ও জুলাইতে আনলক ওয়ান ও আনলক দুই পর্ব চলেছে। কঠিন এই সময়ে অনেকেই জীবিকা হারিয়েছেন, ফলে পেটের টানে অনেকেই বিকল্প পেশায় হাঁটছেন। ভারতীয় ক্রিকেটারদের মত হুইল চেয়ার ক্রিকেটারদের আর্থিক সমৃদ্ধি না থাকায় ধামিও বেছে নিয়েছেন অন্য পেশা। প্রাক্তন অধিনায়ক ধামি এখন মহাত্মা গান্ধি জাতীয় গ্রামীন কর্মসংস্থান নিশ্চয়তার প্রকল্পে রাস্তার ধারে বসে পাথর ভাঙার কাজ করেন।

আরও পড়ুনঃ১৪ বছরের আন্তর্জাতিক কেরিয়ার,তার বোলিংয়ে মুগ্ধ সচিনও, এখন লোকের বাড়ি বাড়ি এসি সারান রে প্রাইস

এর আগে সরকারের কাছে অনেকবার কাজের আবেদন জানিয়েছেন রাজেন্দ্র সিং ধামি। তাঁর শারীরিক অবস্থা অনুযায়ী বসে বসে করা যায় এমন কোনও চাকরি দিক সরকার। কিন্তু কোনও সুরাহা হয়নি। সংবাদ মাধ্যমে খবর দেখে রাজেন্দ্রর আবেদন অবশেষে উত্তরাখণ্ডের পিথোরাগড়ের জেলা শাসকের কানে গিয়ে পৌঁছেছে। তিনি জেলার ক্রীড়া আধিকারিকদের নির্দেশ দিয়েছেন অবিলম্বে ধামিকে আর্থিক সহয়তা প্রদানের। যত তাড়াতাড়ি সম্ভব মুখ্যমন্ত্রী স্বরোজগার যোজনা বা অন্য কোনও প্রকল্পে প্রাক্তন দিব্যাংশ ক্রিকেটারকে কাজের ব্যবস্থা করে দেওয়া হবে বলেও তিনি আশ্বাস দিয়েছেন। কষ্টের দিন ঘুচে একটু সুখের মুখ দেখুক ধামি জানিয়েছেন স্থানীয়রা। সরকারও রাজেন্দ্র সিম ধামি ও দীনেশ শেনদের জন্য  বিশেষ কোনও ব্যবস্থা করুক সেই দাবিও উঠেছে বিভিন্ন মহলে। 

আরও পড়ুনঃকার পরামর্শে ক্যান্সারকে হারিয়ে মাঠে ফেরার অনুপ্রেরণা পেয়েছিলেন,জানালেন যুবরাজ সিং