ভারতীয় ব্যাটিং লাইন আপে বিশ্বকাপের আগে থেকে চলছিল জল্পনা। ভারতীয় ব্যাটিংয়ে ওপেনার ও তিন নম্বরে ভালো ব্যাটসম্যান থাকলেও এখনও পর্যন্ত ভারতীয় ব্যাটিং অর্ডারে ৪ নম্বর ব্যাটসম্যান খুঁজে পাওয়া যায়নি। বিজয় শঙ্কর সহ ঋষভ পন্থের মতন ব্যাটসম্যানদের সেই জায়গায় সুযোগ দেওয়া হলেও সফল হননি কেউ। তবে এবার ফের একবার ভারতীয় দলের চার নম্বরে নাম উঠে আসছে মুম্বইয়ের ব্যাটসম্যান ও দিল্লি ক্যাপিটলস দলের অধিনায়ক শ্রেয়স আইয়ারের। ভারতের হয়ে শেষ কিছু ম্যাচে দুরন্ত ছন্দে দেখা গিয়েছে শ্রেয়সকে। এবার সেই অনুযায়ী তাঁকে নিয়ে ভাবা যেতেই পারে ভারতীয় দলের চার নম্বর ব্যাটসম্যান হিসাবেও এমনটাই মনে করছেন কিছু ক্রিকেট বিশেষজ্ঞরা। শুধু টি২০ ম্যাচ নয় এবার একদিনের ক্রিকেট দলেও নিয়মিত সুযোগ পাওয়া উচিত আইয়ারের এমনটাই মনে করছেন প্রাক্তনিরাও।

আরও পড়ুন, ১০ মাস নয়, বাড়তে চলেছে বোর্ড সভাপতি সৌরভের মেয়াদ

ভারতের হয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজের মাঠে ভালো ব্যাটিং করেছিলেন শ্রেয়স। একদিনের ম্যাচে ওয়েস্ট ইন্ডিজের ঘরের মাঠে একটি ম্যাচে ৭১ ও একটি ম্যাচে ৬৫ রানের ইনিংস খেলতে দেখা যায় শ্রেয়সকে। একই সঙ্গে মিডল অর্ডারে ভারতীয় দলের ভার সামলাতেও দেখা গিয়েছে তাঁকে। একই সঙ্গে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে টি২০ ম্যাচের তৃতীয় একদিনের ম্যাচেও ভালো খেলেছেন তিনি। ব্যাট হাতে ৩৩ বলে ৬২ রানের একটি দুরন্ত ইনিংসও খেলেন এই ভারতীয় ব্যাটসম্যান। একই সঙ্গে প্রথম দুই ম্যাচেও শ্রেয়সের ব্যাট থেকে এসেছে রান। তাই এবার দিল্লি ক্যাপিটালসের অধিনায়ক ভারতীয় একদিনের দলের চতুর্থ স্থান নিতে পারেন কি না সেই শুরু হয়ে গিয়েছে প্রবল জল্পনা।

আরও পড়ুন, গোলাপি বলে খেলার টোটকা দিলেন চেতেশ্বর পূজারা

দিল্লি ক্যাপিটালসের হয়ে নিজের দলকে ভালো করে পরিচালনা করতে দেখা গিয়েছিল আইয়ারকে। সেই দলের মেন্টর হিসাবে ছিলেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ও। তবে এবার সৌরভ বোর্ডের সভাপতি। আর তারপরই এবার শ্রেয়সের মতন ক্রিকেটারদের একিদেনর ক্রিকেটে নিয়মিত সুযোগ পাবে সেটা নিয়েও শুরু হয়ে গিয়েছে জল্পনা। শ্রেয়সকে নিয়ে সুখ্যাতি করেন তাঁর কোচ প্রবীন আমরেও। তাঁকে নিয়ে আমরে বলেন, 'শ্রেয়স একজন ভালো ব্যাটসম্যান। যখন ওর ব্যাটে বল লাগতে শুরু করে তখন ওকে কেউ আটকাতে পারে না। টি২০ শুধু নয় ভারতীয় দলে নিয়মিত সুযোগ পাওয়া দরকার ওর।'